লাকসামে ঋনের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে জেলের আত্মহত্যা

কুমিল্লার লাকসামে ঋনের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক জেলে আত্ম হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার লাকসাম থানা পুলিশ গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেছে। নিহত ওই জেলে উপজেলার মুদাফ্ফরগঞ্জ ইউপির চিকোনীয়া গ্রামের মৃত.শ্রীদাম চন্দ্র ভৌমিকের ছেলে অমদ চন্দ্র ভৌমিক(৫৫)। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে কুমেক মর্গে পেরন করেছে।নিহতের ভাই রবিন্দ্র চন্দ্র ভৌমিক বাদী হয়ে লাকসাম থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেছে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, নিহত অমদ চন্দ্র ভৌমিক পেশায় একজন মাছ চাষি ও জেলে।মাছের ব্যবসা করতে গিয়ে স্ত্রীকে দিয়ে ব্র্যাক ও গ্রামীন ব্যাংক থেকে ঋন নেয়। সামান্য আয়ে সংসারে খরচ ও ঋনের টাকা শোধ করা তার পক্ষ্যে সম্ভব না হওয়ায় প্রতিনিয়ত সে দারদেনা করে চলত। গত কয়েক দিন থেকে সে মানষিক ভারসাম্য হারিয়ে পেলে।

 

গত বৃহস্পতিবার সকালে সে জাল দিয়ে মাছ ধরেন। রাতে বাড়ী না ফেরায় পরিবারের লোকেরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজা খুজি করে। সকালে পাশ্ববর্তী খাতাপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের একটি পরিতেক্ত বাড়ীতে লাশ ঝুলে থাকতে দেখে পুলিশ কে খবর দেয়।লাকসাম থানা পুলিশের এসআই মোঃ বোরহান উদ্দিন ভুঁইয়া তার লাশ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। নিহত অমদ চন্দ্র ভৌমিকের ছোট ভাই রবিন্দ্র চন্দ্র ভৌমিক বাদী হয়ে লাকসাম থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন।

 

এবিষয়ে লাকসাম থানা পুলিশের অফিসার ইনর্চাজ(ওসি) আবদুল্লাহ আল-মাহফুজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।