কুমিল্লা শহরে কোন চাঁদাবাজি-সন্ত্রাস নেই : এমপি বাহার

আওয়ামী লীগ সভাপতি আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার এমপি বলেছেন, এই বাংলাদেশ এক সময় দুর্নীতি, খাদ্য ঘাটতি, বিদ্যুৎ ঘাটতির দেশ, জঙ্গিবাদের দেশে পরিণত হয়েছিল। কিন্তু আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। এই দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সমুদ্র জয় করেছি, আকাশ জয় করেছি, পারমানবিক বিশ্বে নাম লিখিয়েছি।

 

শেখ হাসিনার সরকার এখন ২০৪১ সালে জ্ঞান নির্ভর ধনী বাংলাদেশ গড়তে কাজ করছেন। দেশের উন্নতি ধরে রাখতে হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। দেশের এ অগ্রযাত্রাকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধীরা এ উন্নয়ন মেনে নিতে পারছে না। তারা সর্বশেষ আমাদের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের কাঁধে ভর করে ফায়দা লুটতে চেয়েছিল।

 

তারা ১৯৭১ সালে সফল হতে না পেরে ৭৫ এর ১৫ আগস্ট ঘটিয়েছিল। ২১ আগস্ট জনসভায় গ্রেনেড হামলা চালিয়ে শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চেয়েছিল। ২০১৪ ও ২০১৫ সালে জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলনের নামে মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছিল। তাদের বিরূদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। জাতির কর্ণধার আমাদের শিক্ষক সমাজ। শিক্ষকের দায়িত্ব নিতে হবে। নাশকতাকারীদের প্রতিহত করতে হবে।

 

দেশ অগ্রযাত্রা বিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের বিষয়ে জনগণকে সচেতন করতে হবে। দেশের উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরতে হবে। সোমবার কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলাধীন কমলাপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে ১ নং কালিরবাজার ইউনিয়নের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদের সাথে শিক্ষার মানোন্নয়নে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাজী আ.ক.ম বাহাউদ্দির বাহার এমপি এসব কথা বলেন।

 

এমপি বাহার আরো বলেন, আমি একজন শিক্ষকের সন্তান হিসেবে গর্ববোধ করি। আমার পিতা ছিলেন একজন স্কুল শিক্ষক। পিতার আদর্শ নিয়ে সর্বদা সৎ থেকেই অদ্যাবধি পর্যন্ত মানব সেবার পাশাপাশি জীনব পরিচালনা করে আসছি। কারো সাথে আপোষ করিনি। মাদক আর ইভটিজিং মুক্ত কুমিল্লা গড়তে কাজ করছি।

 

আজ কুমিল্লা শহরে নেই কোন চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস, ঠেকবাজ, কোন ছিনতাই। কুমিল্লার এই শান্তি ও উন্নয়ন ধরে রাখতে আপনাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং আগামী জাতীয় নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।

 

গতকাল সোমবার কমলাপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হাজী মফিজুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আবিদুর রহমান জাহাঙ্গীর, আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড. মো: আমিনুল ইসলাম টুটুল, ভাইস চেয়ারম্যান মো: তারিকুর রহমান জুয়েল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এড. হোসনেয়ারা বেগম বকুল, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষ অফিসার মো: দেলোয়ার হোসেন মজুমদার

 

স্বাগত বক্তব্য রাখেন কালিরবাজার ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো.সেকান্দর আলী। অনান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো: জহিরুল আলম, সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি কায়সার আহমেদ,ধনুয়াখলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ শামীম হায়দার, ধনুয়াখলা আহাম্মদিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা দেলোয়ার হোসেন ভূইয়া, কালিরবাজার ইউ পি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.মিজানুর রহমান আখন্দ, কমলাপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আখতারুজ্জামান, হাতিগাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নূরুন নাহার প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক এম.এইচ মনির।