মুজিববর্ষের অঙ্গীকার "পুলিশ হবে জনতার" এ প্রতিপাদ্যে নিয়ে পুলিশ সেবা সপ্তাহ শুরু - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

মুজিববর্ষের অঙ্গীকার “পুলিশ হবে জনতার” এ প্রতিপাদ্যে নিয়ে পুলিশ সেবা সপ্তাহ শুরু



কেফায়েত উল্লাহ মিয়াজী।।, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

মুজিববর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতার এ প্রতিপাদ্য নিয়ে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে পুলিশ সেবা সপ্তাহ-২০২০ শুরু হয়েছে রোববার থেকে। পাঁচ দিনব্যাপী পুলিশ সপ্তাহ চলবে ১০ই জানুয়ারি পর্যন্ত । পুলিশের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য এ ধরনের সাপ্তাহ পালিত হয়।


পুলিশ রাষ্ট্রের একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ সেবাধর্মী সংস্থা। এ সংস্থার সদস্যরা দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করেন, অপরাধ দমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। বলার অপেক্ষা রাখে না, এ দেশের পুলিশ জঙ্গিবাদ দমনসহ নানা অপরাধ নিবারনমূলক কর্মকাণ্ডে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে চলেছে। তবে এটাও ঠিক, পুলিশ সদস্যদের একটি অংশ তাদের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন তো করছেই না, উল্টো নিজেরা জড়িত হয়ে পড়ছে নানান অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে। 


পুলিশি সেবা প্রাপ্তি সহজ করার লক্ষ্যে রবিবার থেকে শুরু এ ‘পুলিশ সেবা সপ্তাহ’ পালনের লক্ষ্য হচ্ছে, পুলিশ হেল্প লাইন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর মাধ্যমে সেবা প্রাপ্তি, আইজিপি কমপ্লেইন সেল, নারী ও শিশুবান্ধব পুলিশিং, কমিউনিটি পুলিশিং ইত্যাদি সম্পর্কে জনগণকে অবহিত করা। জনবান্ধব পুলিশি সেবা প্রদানের জন্য ওপেন হাউজ-ডে আয়োজন, ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে প্রদত্ত সেবা সম্পর্কে প্রচারণা, অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সেবা প্রদান সম্পর্কে জনসচেতনতা তৈরী করা।


এই সেবা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের আয়োজনে র‍্যালী ও জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে মাইকিং ব্যানার পেস্টুন ও লিফলেট বিতরন করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদে পদন্নোতি প্রাপ্ত) আব্দুলাহ আল মামুন, সহকারী পুলিশ সুপার (চৌদ্দগ্রাম সার্কেল) সাইফুল ইসলাম, নাঙ্গলকোট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মামুন অর রশিদ পিপিএম, সদর দক্ষিন থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম পিপিএম, নাঙ্গলকোট থানার ওসি তদন্ত মোঃ আশরাফুল ইসলাম প্রমুখ। 


এ সেবা সপ্তাহকে সামনে রেখে নাঙ্গলকোট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মামুন অর রশিদ পিপিএম নিজ উদ্যোগে থানায় আগত সেবা প্রত্যাশীদের হয়রানি ও ঘুষমুক্ত সেবা প্রাপ্তি নিশ্চিত করনের লক্ষে নানা ধরনের পেস্টুন ও ব্যানার টানিয়েছেন। এছাড়াও থানা ভবন ও দেয়ালে রং করে “আপনার মেয়েকে যেভাবে শশুর বাড়ীতে দেখতে চান, ছেলের বউকে সেভাবে রাখুন” “স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল পুলিশ আরো গতিশীল” ও “পুলিশ জনতার মেলবন্ধন, উন্নয়নশীল দেশে উত্তোরন” বাক্যে অসংখ্য দেয়াল লিখন করা হয়েছে। ওসির এমন উদ্যোগে থানা এলাকায় পুলিশের ভাবমুর্তি সমুন্নত সহ ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

কুমিল্লা এর অন্যান্য খবরসমূহ
নাঙ্গলকোট এর অন্যান্য খবরসমূহ