হাসপাতালে চিকিৎসা না দেয়ার প্রতিবাদে লাকসামে হিজড়াদের সংবাদ সম্মেলন - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

হাসপাতালে চিকিৎসা না দেয়ার প্রতিবাদে লাকসামে হিজড়াদের সংবাদ সম্মেলন



মোঃ আবুল কালাম, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

লাকসাম সরকারি হাসপাতালে হামলা ও থানায় দায়েরকৃত মিথ্যা অভিযোগের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে হিজড়া সোলায়মান হোসেন চুমকি গুরু। গতকাল বৃহস্পতিবার পৌরসভার ভোজপাড়ায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে হিজড়া চুমকি গুরু জানান, গত ১৭ই ফেব্রæয়ারি দুপুরে বিষপানে অসুস্থ হয়ে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার শাহীনুর আক্তারের উপস্থিতিতে ব্রাদার আবুল খায়ের কোন পরিক্ষা-নিরিক্ষা ছাড়াই আমাকে মৃত ঘোষণা করে সাথে থাকা লোকজনকে লাশ বাড়ি নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেয়।

এ কথা শুনে আমি ডাক্তারকে চিকিৎসা দেয়ার অনুরোধ করলে ‘হাসপাতালে হিজড়াদের চিকিৎসা দেয়া হয় না’ বলে ব্রাদার আবুল খায়ের বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। এ সময় জড়ো হওয়ায় স্থানীয় লোকজনও ব্রাদার আবুল খায়েরের সাথে তর্কে জড়িয়ে একপর্যায়ে হাতাহাতিতে লিপ্ত হয়। তখন আমার সাথে থাকা লোকজন আমাকে কুমিল্লা নিয়ে চিকিৎসা করায়। আমাদের বিরুদ্ধে হাসপাতালে হামলা, ডাক্তার ও ব্রাদারকে মারধর, টাকা-মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। এ বিষয়ে দু’টি পত্রিকায় মিথ্যা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রকাশিত সংবাদেরও প্রতিবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ প্রশাসনের নিকট হিজড়াদের চিকিৎসা না দিয়ে হিজড়াদের অপমানের সঠিক বিচার দাবি করেন হিজড়া সোলায়মান হোসেন চুমকি গুরু। এ ঘটনায় হিজড়ারা হাসপাতালের সিসিটিভির ফুটেজ দেখে প্রকৃত দোষিদের সনাক্ত করারও আহবান জানান। এ সময় অন্যান্য হিজড়ারা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে ব্রাদার আবুল খায়ের বলেন, বিষ সেবনকারী একজন মহিলা চিকিৎসা নেয়ার পর কয়েকজন হিজড়া এসে জরুরী বিভাগে ভাংচুর চালায়। আমি বাধা দিলে আমার উপর হামলা চালিয়ে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয় হিজড়ারারা। আমার সাথে থাকা কর্মরত ডাক্তার শাহিনুর আক্তারের উপর হামলা চালিয়ে পালিয়ে যায়।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

কুমিল্লা এর অন্যান্য খবরসমূহ
লাকসাম এর অন্যান্য খবরসমূহ