কক্সবাজার পৌরসভায় ৬ মেয়রসহ ১০৪ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল

আসন্ন কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে দিন শেষে মেয়র পদে ৬, কাউন্সিলর পদে ৮০ ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৮ প্রার্থীসহ সর্বমোট ১০৪ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। গত ২৪ জুন রোববার মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা মনোয়নপত্র জমা দেন। কক্সবাজার জেলা নির্বাচন কার্যালয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

 

নির্বাচন কার্যালয়ের তথ্য মতে, ৯জন মেয়রসহ ১৪০জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। তার মধ্যে জমা দিয়েছে ৬মেয়রসহ মোট ১০৪ জন ওয়ার্ড প্রার্থী। মেয়র প্রার্থী হিসেবে জমা দিয়েছেন ৬জন প্রার্থী। এরা হলেন- আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, বিএনপির মনোনিত প্রার্থী ও জেলা শ্রমিকদলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, জামায়াত ইসলামী সমর্থিত প্র্রার্থী বতর্মান মেয়র সরওয়ার কামাল, জাতীয় পার্টি মনোনিত রুহুল আমিন সিকদার, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের নেতা মো. জাহেদুর রহমান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী খোরশেদ আনোয়ার। বাকী ৩জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন ঠিকই কিন্তু শেষমেষ আর জমা দেননি। এদের মধ্যে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কায়সারুল হক জুয়েল ও পৌর কাউন্সিলর জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক জিসান উদ্দীন জিসান মনোনয়নপত্র জমা দেননি। আর সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোহাম্মদ আলী জমা দিতে গিয়েও সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় তার মনোনয়নপত্র গ্রহণ করা হয়নি।

 

এদিকে ১, ২, ৩ নং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন শাহেনা আকতার, আয়েশা সিরাজ, হুমায়রা বেগম, টিপু সোলতানা ও ফাতেমা বেগম।
৪, ৫, ৬ নং ওয়ার্ডে থেকে ইয়াছমিন আকতার, রেবেকা সুলতানা ও চম্পা উদ্দীন।
৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ড থেকে জাহেদা আক্তার, জোৎস্না আক্তার, রাবেয়া সুলতানা, সুমা দাশ, আয়েশা ইসলাম ও দ্বীপ্তি শর্মা।
১০, ১১, ১২নং ওয়ার্ড থেকে হোসেন আরা, কোহিনুর ইসলাম, পারভীন আক্তার ও নাছিমা আকতার।
১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে রাহামত উল্লাহ, মোস্তাক আহমদ, এস.আই.এম. আক্তার কামাল আজাদ, সিকান্দর আবু জাফর ও মোঃ আতিক উল্লাহ।
২নং ওয়ার্ড থেকে মনির উদ্দীন, মোঃ জসিম উদ্দিন, হোসাইন ইসলাম বাহাদুর, মিজানুর রহমান, এম. জাফর আলম হেলালী ও আবু তাহের।
৩নং ওয়ার্ড থেকে মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম মুকুল ও মোঃ মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী।
৪নং ওয়ার্ড থেকে নুরুল আবছার, আবদু গফ্ফার, এরশাদু জামান, মোঃ দিদারুল ইসলাম, জুনায়েদ আহমদ, মিজানুল করিম, আবু খালিদ, মোঃ গিয়াস উদ্দিন, সিরাজুল হক, হায়দার, মনছুর আলম এবং ওমর ফারুক।৫নং ওয়ার্ড থেকে সাইফুল ইসলাম চৌধুরী সাইফুল্লাহ, সাহাব উদ্দিন, গোলাম আরিফ লিটন, ছালামত উল্লাহ বাবুল ও মোরশেদ হোসাইন তানিম।
৬নং ওয়ার্ড থেকে মোঃ ফেরদৌস চৌধুরী, ওমর ছিদ্দিক, ফাহাদ আলী, নাছির উদ্দিন, মোশারফ আজাদ (মনছুর), মোঃ শহীদুল্লাহ, মোহাম্মদ মোরাদ, শফিউল আলম, শাহ আলম, রেজাউল করিম সিকদার, মনিরুল হক ও শুবদত্ত বড়ুয়া।
৭নং ওয়ার্ড থেকে জাফর আলম, মুুহাম্মদ রশিদ, আশরাফুল হুদা সিদ্দিকী জামসেদ, ফোরকান আহমেদ খোকন।
৮নং ওয়ার্ড থেকে ইশতিয়াক আহমেদ জয়, বেলাল হোসেন, ডালিম কুমার বড়ুয়া, রাজবিহারী দাশ, রাজিব পাল, মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম।
৯নং ওয়ার্ড থেকে মোঃ হেলাল উদ্দীন, মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ, আবু ওবায়েদ্দীন নাছের, মোঃ শওকত আলম।
১০ নং ওয়ার্ড থেকে সালা উদ্দিন, কফিল উদ্দিন, জাবেদ মোঃ কায়সার নোবেল, নুরচ্ছফি মোঃ সাগর।
১১ নং ওয়ার্ড থেকে দেলোয়ার হোসেন আমীর হোসেন, আবু শাহাদৎ মোঃ সায়েম, সাইফুল ইসলাম, মোঃ সেলিম রেজা, মোঃ শফিউল আলম, নুর মোহাম্মদ, মোহাম্মদ জরিপ আলী, মোঃ হেলাল উদ্দীন, আহম্মদ হোসেন, আবদুল মজিদ সুমন, আজমল হুদা, মোঃ আরিফুর রহমান, মফিজুর রহমান।
১২ নং ওয়ার্ড থেকে আবুল মনছুর, নুরুল ইসলাম, মোঃ মিনারুল কবির, কাজী মোরশেদ আহম্মদ বাবু, মোঃ জসিম উদ্দীন, কাজী রাশেল আহমেদ।

 

এদিকে সকাল থেকে বৃষ্টির কারণে প্রার্থীরা নির্ধারিত সময়ের কয়েক ঘন্টা পর থেকেই মূলত মনোনয়নপত্র দাখিল করতে যায়। বেলা বাড়ার সাথে সাথে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা দলীয় কর্মী সমর্থক ও এলাকার জনসাধারণকে সাথে নিয়ে মনোয়নপত্র জমা দিতে দলে দলে জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে হাজির হতে থাকেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, বিএনপির প্রার্থী রফিকুল ইসলাম, জামায়াত সমর্থিত প্রার্থী বর্তমান মেয়র সরওয়ার কামাল ও জাপা প্রার্থী রহুল আমিন সিকদার বিপুল সমর্থক নিয়ে শোডাউন সহকারে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এতে পুরো এলাকা লোকে লোকারণ্য হয়ে পড়ে। অন্যদিকে এসব লোকজনের কারণে সড়কে যান চলাচলে বিঘœ ঘটে মারাত্মক যানজটের সৃষ্টি হয়।
নির্বাচন কার্যালয় জানিয়েছে, এবার কক্সবাজার পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৮৩ হাজার ৭২৮জন। এতে পুরুষ ভোটার ৪৪হাজার ৩শ’ ৭৩জন ও মহিলা ভোটার ৩৯ হাজার ৩শ’ ৫৫জন।
পৌর ১ নং ওয়ার্ডে ভোটার ৭হাজার ৮শ’ ৬১জন। এতে পুরুষ ৩হাজার ৮শ’ ৯২ ও মহিলা ৩ হাজার ৯শ’ ৬৯জন।
২নং ওয়ার্ডে ৮হাজার ৮৯ জন। এতে পুরুষ ৪ হাজার ৩৪০ ও মহিলা ৩ হাজার ৭৪৯ জন।
৩নং ওয়ার্ডে ৫ হাজার ৯৪২ জন। এতে পুরুষ ৩হাজার ৮শ’ ৮৪ ও মহিলা ২হাজার ৫৮ জন।
৪নং ওয়ার্ডে ৭ হাজার ৪শ’ ৩১ জন। এতে পুরুষ ৩ হাজার ৭শ’ ৮৫ ও মহিলা ৩হাজার ৬শ’ ৪৬ জন।
৫নং ওয়ার্ডে ৬ হাজার ৬শ’ ২৫ জন। এতে পুরুষ ৩ হাজার ৩শ’ ২৩ ও মহিলা ৩ হাজার ৩শ’ ২জন।
৬নং ওয়ার্ডে ৭ হাজার ৪শ’ ৭৪ জন। এতে পুরুষ ৩ হাজার ৮শ’ ৮৪ ও মহিলা ৩ হাজার ৫শ’৯০ জন।
৭নং ওয়ার্ডে ৮ হাজার ৫শ’ ১জন। এতে পুরুষ ৪ হাজার ২শ’ ১৭ ও মহিলা ৪ হাজার ২শ’ ৮৪ জন।
৮নং ওয়ার্ডে ৬হাজার ৪শ’ ৮০জন। এতে পুরুষ ৩ হাজার ৩শ’ ৫৫ ও মহিলা ৩ হাজার ২শ’ ২৫ জন।
৯নং ওয়ার্ডে ৬ হাজার ৪শ’ ১২জন। এতে পুরুষ ৩ হাজার ২শ’ ১৫ ও মহিলা ৩ হাজার ১শ’ ৯৭জন।
১০নং ওয়ার্ডে ৬হাজার ৯শ’ ১৪জন। এতে পুরুষ ৩হাজার ৭শ’ ৬৬ ও মহিলা ৩হাজার ৩হাজার ১শ’ ৪৮ জন।
১১ নং ওয়ার্ডে ৫হাজার ৫শ’ ৯০ জন। এতে পুরুষ ৩হাজার ৬৯ ও মহিলা ২ হাজার ৫শ’ ২১জন।
১২ নং ওয়ার্ডে ৬হাজার ৩শ’ ৯ জন। এতে পুরুষ ৩হাজার ৬শ’ ৪৩ ও মহিলা ২ হাজার ৬শ’ ৬৬ জন ভোটার রয়েছেন।

 

এ ব্যাপারে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোজাম্মেল হোসেন বলেন, মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিনে মেয়র ও কাউন্সিলর পদের অধিকাংশ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। নিয়ম মেনেই সবার মনোনয়নপত্র গ্রহণ করা হয়েছে। এসব মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ২৬ জুন। প্রার্থীতা প্রত্যহারের শেষ দিন ৩ জুলাই।