হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও ওফাত দিবস উৎসাহ-উদ্দীপনায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে পালন করা উচিৎ - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :
কক্সবাজার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের আলোচনা সভায় মেয়র মুজিবুর রহমান

হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর জন্ম ও ওফাত দিবস উৎসাহ-উদ্দীপনায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে পালন করা উচিৎ



সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান বলেছেন, সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশেষ নবী হযরত মুহাম্মদ মোস্তফা (সা.) এর পৃথিবীতে শুভাগমন ও তাঁর ওফাত দিবস স্মরণে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করা আমাদের সকলের দায়িত্ব এবং কর্তব্য। এছাড়া যিনি ইসলামের সঠিক প্রচার ও প্রসারের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিরবুর রহমান ও তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ বঙ্গবন্ধু পরিবারের সকলের জন্য মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে দোয়া করার আহবান জানান মেয়র। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে কক্সবাজার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানের জেলা কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) ১৪৪১ হিজরী যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
কক্সবাজার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক ফাহমিদা বেগম এর সভাপতিত্বে ও সদর উপজেলার এফ.এস আবুল ফয়েজের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) এর গুরুত্ব ও তাৎপর্যের বিষয়ে প্রধান আলোচক ছিলেন কুতুব শরীফ দরবারের প্রতিনিধি আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মাওলানা ইদ্রিস। বিশেষ আলোচক ছিলেন তৈয়বিয়া তাহেরীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ শাহাদাত হোসাইন আল কাদেরী, কক্সবাজার জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি মাও. কাজী সিরাজুল ইসলাম সিদ্দিকী। অনুষ্ঠানে কক্সবাজার জেলার ফিল্ড অফিসার মোঃ ফজল করিম, মাস্টার ট্রেইনার আমান উল্লাহ এবং জেলার ধর্মপ্রাণ মুসলমান, আলেম সমাজ ও আশেকে রাসূলগণসহ সংশ্লিষ্ট আলেমগণ উপস্থিত ছিলেন। এর আগে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার ইসলামিক ফাউন্ডেশন সহকারি পরিচালক সরওয়ার আকবর।


কক্সবাজার এর অন্যান্য খবরসমূহ