কক্সবাজার পৌরসভায় ৬শ’ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলছে: মেয়র মুজিবুর রহমান - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

কক্সবাজার পৌরসভায় ৬শ’ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ এগিয়ে চলছে: মেয়র মুজিবুর রহমান



সংবাদ বিজ্ঞপ্তি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

কক্সবাজার পৌর এলাকায় ৬শ’ কোটি টাকার সার্বিক উন্নয়ন কর্মকান্ড এগিয়ে চলছে। এরমধ্যে আলাদা প্রকল্পের অধিনে ৩শ’ কোটি টাকার কাজ চলমান এবং বাকি ৩শ’ কোটি টাকার কাজ শিগগিরই শুরু হবে। প্রকল্পগুলোর কাজ শেষ হলে আগামী ৬ মাসের মধ্যে পর্যটন নগরীর চেহারা বদলে যাবে বলে জানিয়েছেন মেয়র মুজিবুর রহমান।


এছাড়াও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্প ইউজিপি-থ্রি’র অধিনে ৮ কোটি ১৭ লাখ ৪৮ হাজার ৫১৩.০৬ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে পৌর এলাকার ১০টি বস্তির জীবন মানোন্নয়নে লক্ষ্যে অবকাঠামো নির্মাণ কাজও পুরোদমে চলছে বলে তথ্য প্রকাশ করেন মেয়র। মঙ্গলবার বিকেলে শহরের ঝাউতলা রেডিয়েন্ট ফিশ ওয়ার্ল্ডের কনফারেন্স হলে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন। কক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় মেয়র মুজিবুর রহমান আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা অনুযায়ী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কক্সবাজারকে পরিকল্পিতভাবে সাজাতে নিরলসভাবে কাজ করছে পৌর পরিষদের প্রত্যেক কাউন্সিলর এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এ কাজে স্ব-স্ব এলাকার জনগনের সহযোগিতা প্রয়োজন।

মেয়র বলেন, ২০২০ সাল হলো জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ)। আর মুজিববর্ষ হবে উন্নয়নের বর্ষ, অনুন্নত এলাকা উন্নয়নের মাধ্যমে বদলে দেয়ার বর্ষ। সে জন্য বিশেষ করে সাংবাদিকদের পবিত্র কলমের লিখনির মাধ্যমে গঠনমূলক পরামর্শ আশা করেন এই জনপ্রতিনিধি।


কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্প ইউজিপি-থ্রি’র ৭৮ কোটি ২৪ লাখ ৩৩ হাজার ৮৮৬.৩৬ টাকার ৮টি প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। একই প্রকল্পের আওতায় প্রক্রিয়াধিন রয়েছে ৩০ কোটি ৫১ লাখ ৫ হাজার ২২৪.৪০ টাকার কাজ। এছাড়া এমজিএসপি প্রকল্পের অধিনে ১৪০ কোটি ২ লাখ ৫২ হাজার ৩০০.৬৭ টাকার ৮টি উন্নয়ন কাজ শুরু হবে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে।

সবচেয়ে বড় প্রজেক্টের এই কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে ৬ মাসের মধ্যে। অন্যদিকে পৌরসভার নিজস্ব তহবিলের আওতায় টেন্ডারকৃত ৭ কোটি ২১ লাখ ১ হাজার ৭৬৪.৮১ টাকা ও জাপানি সাহার্য্য সংস্থা জাইকা’র অধিনে গৃহীত প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৪০ কোটি টাকা। যা চুড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।


মতবিনিময় সভায় দৈনিক কালেরন্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ, বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সদস্য এডভোকেট আয়াছুর রহমান, দৈনিক প্রথম আলোর কক্সবাজার অফিস প্রধান সিনিয়র সাংবাদিক আবদুল কুদ্দুস রানা, কক্সবাজার পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ হেলাল উদ্দিন কবির ও পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ নুরুল আলম বক্তব্য রাখেন। এসময় পৌরসভার প্যানেল মেয়র-৩ শাহেনা আক্তার পাখি, কাউন্সিলর আক্তার কামাল আজাদ, মিজানুর রহমান, দিদারুল ইসলাম রুবেল, সাহাব উদ্দিন সিকদার, ওমর ছিদ্দিক লালু, আশরাফুল হুদা ছিদ্দিকী জামশেদ, রাজ বিহারী দাশ, সালাউদ্দিন সেতু, নুর মোহাম্মদ, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর ইয়াছমিন আক্তার, জাহেদা আক্তার, নাছিমা আক্তার, সহকারী প্রকৌশলী সিরাজুল কালাম বাবুল, ইঞ্জিনিয়ার টিটন দাশ, মনতোষ চাকমা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. খোরশেদ আলমসহ পৌরসভার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

কক্সবাজার এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ