গাজীপুরে ৬ ঘন্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে, কোটি টাকার ক্ষতি

ছয় ঘণ্টা পর গাজীপুরের বোর্ডবাজারে পোশাক কারখানার আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনো জ্বলছে। মঙ্গলবার বেলা ১টায় গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক (ডিএডি) মো. আক্তারুজ্জামান লিটন ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাংবাদিকদের একথা জানান। আগুন নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনো জ্বলছে বলে জানান তিনি।

 

আগুনে অন্তত একশ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে কারখানা কর্তৃপক্ষ দাবি করছে। সকাল সোয়া ৭টার দিকে ‘ম্যাট্রিক্স গামেন্টস’ নামের ওই সোয়েটার কারখানার আট তলা ভবনে আগুন লাগে। নিরাপত্তার কারণে আশপাশের কয়েকটি কারখানায় ছুটি ঘোষণা করা হয়। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

 

ধোঁয়ায় আগুন নেভাতে আসা এলাকার কয়েকজন আহত হলে তাদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে জানান টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মোরশেদুল ইসলাম।

 

ডিএডি মো. আক্তারুজ্জামান জানান, টঙ্গী, ইপিজেড ও সাভার ফায়ার স্টেশনের ২৪টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে যোগ দেয়। তবে কীভাবে ওই কারখানায় আগুন লেগেছে তা জানাতে পারেননি দমকল কর্মকর্তারা।

 

এদিকে আগুন লাগার পর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচল কিছুক্ষণ বন্ধ থাকার পর চালু হয়ে আবার বন্ধ হয়ে গেছে বলে জানান টঙ্গী থানার ওসি মো. ফিরোজ তালুকদার।

 

তিনি বলেন, ঝুঁকি এড়াতে অগ্নিকাণ্ডের আশপাশের কয়েকটি কারখানায় ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

নওজোড় মহাসড়ক পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক বাহারুল আলম জানান, ভোগড়া বাইপাস থেকে ঢাকামুখী যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী যানবাহন চলছে ধীরে ধীরে।

 

ময়মনসিংহ থেকে ঢাকামুখী যানবাহন বিকল্প পথে মীরের বাজার ও টঙ্গী হয়ে চলছে বলে জানান তিনি।

 

কারখানাটির পরিচালক (অর্থ) অনিমেশ মজুমদার জানান, কারখানার অষ্টম তলায় ফিনিশড প্রোডাক্টস ও গরম পানি ছিল। সেগুলো ছিল রপ্তানির অপেক্ষায়।

 

এতে তাদের অন্তত একশ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।