লক্ষ্মীপুরে ইউপি চেয়ারম্যান অস্ত্রের মুখে অপহরণ : প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ, ভাংচুর - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

লক্ষ্মীপুরে ইউপি চেয়ারম্যান অস্ত্রের মুখে অপহরণ : প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ, ভাংচুর



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বশিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাশেম জেহাদীকে শনিবার রাতে সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে অপহরণ করেছে। এর প্রতিবাদে বশিকপুর ইউপির পোদ্দার বাজারে ব্যবসায়ীরা গতকাল সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দোকানপাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ মিছিল করেন। এছাড়া সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ৪ ঘণ্টা লক্ষ্মীপুর-ঢাকা সড়কের মান্দারী, হাজিরপাড়া, চরচমিতা, ইসলাম মার্কেট ও চন্দ্রগঞ্জ বাজারে অবরোধ করে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় চেয়ারম্যানের সমর্থকরা। এতে এ রোডের যাত্রীরা চরম দুর্ভোগে পড়েন। বিক্ষোভকারীরা শহরে দোকানপাটসহ ২০টি গাড়ি ভাঙচুর করে। এসময় অন্তত ২০ পথচারী আহত হন। পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, শনিবার রাত আনুমানিক ১১টার দিকে মুখোশপরা একদল অস্ত্রধারী মাইক্রোযোগে পোদ্দার বাজার ভাই ভাই হাসপাতালের সামনে এসে ফাঁকা গুলি করে এলাকায় আতঙ্ক সৃষ্টি করে। পরে সেখান থেকে সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে আবুল কাশেম জেহাদীকে তুলে নিয়ে যায়।
লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম সারোয়ার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তাকে উদ্ধারের চেষ্টায় পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
এদিকে গতকাল জেলা আওয়ামী লীগ ও ইউপি চেয়ারম্যান ফোরামের পক্ষ থেকে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ প্রশাসক একেএম শাহজাহান কামাল, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এম আলাউদ্দিন, পৌর মেয়র আবু তাহের, সদর উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন বকুল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন, জেলা চেয়ারম্যান ফোরাম সভাপতি মীর শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির পাটওয়ারী প্রমুখ। বক্তারা এ ঘটনার জন্য মাদক ব্যবসায়ী লাদেন মাসুমকে দায়ী করেন। তারা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রশাসন অপহৃত আবুল কাশেমকে জীবিত উদ্ধার করতে ব্যর্থ হলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন।


পূর্বের সংবাদ
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০