শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে: দেবিদ্বার শিক্ষক সমিতির শোক র‌্যালী প্রতিবাদ সভা ইউএনও এর কাছে স্মারকলিপি

দেবিদ্বার উপজেলা শিক্ষক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক ও ছোটনা মডেল হাই স্কুল’র প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মোঃ আক্তার হোসেন(৩৫) হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছেন উপজেলা শিক্ষক সমিতি।
সোমবার দুপুরে দেবিদ্বার উপজেলা শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে দেবিদ্বার রেয়াজ উদ্দিন পাইলট উচ্চবিদ্যালয় মিলনায়তনে এক প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়। উপজেলা শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও দেবিদ্বার রেয়াজ উদ্দিন পাইলট উচ্চবিদ্যালয়’র প্রধান শিক্ষক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সরকারের সভাপতিত্বে ওই সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতি কুমিল্লা জেলা কমিটির সভাপতি মোঃ আফসার উদ্দিন, উপজেলা শিক্ষক সমিতি’র সাধারন সম্পাদক দেবিদ্বার মফিজউদ্দিন আহমেদ পাইলট বালিকা উচ্চবিদ্যালয়’র প্রধান শিক্ষক রাশেদা বেগম, শিক্ষক নেতা মোঃ সামসুল হক, মফিজুল ইসলাম প্রমূখ। সমাবেশ শেষে শিক্ষক হত্যার সাথে জড়িত অপরাধীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে একটি মৌন মিছিল নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ’র নিকট একটি স্মারক লিপি প্রদান করেন। এসময় শিক্ষক নেতারা মঙ্গলবার (৪সেপ্টেম্বর) দেবিদ্বার উপজেলার ৪৮টি বিদ্যালয়ে কর্ম বিরতির ঘোষনা দেন এবং সকাল ১১টায় ছোটনা মডেল হাইস্কুলে শিক্ষক সমাবেশ ও শোকসভা করার ক্ষেত্রে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ শিক্ষক নেতাদের আশ্বস্ত করে বলেন, শিক্ষক হত্যার ঘটনা তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়া হবে। আপনাদের শোক সভায় আইন শৃংখলা রক্ষায় পুলিশ মোতায়েন থাকবে।
ওই ঘটনায় নিহত স্কুল শিক্ষক’র ছোট ভাই মোঃ আবেদ হোসেন বাদী হয়ে গত রোববার কুমিল্লার আদালতে ছোটনা গ্রামের মৃতঃ কফিল উদ্দিন’র পুত্র খোরশেদ কিবরিয়া(৪২)সহ ১৭জনকে অভিযুক্ত করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।
উল্লেখ্য দেবিদ্বার উপজেলার ছোটনা গ্রামের কথিত বিয়ের নীতিমালা না মেনে বিয়ে করার অপরাধে স্থানীয় একদল যুবক কর্তৃক শারিরীক নির্যাতন, লাঞ্ছিত ও জোর করে প্রধান শিক্ষক পদ থেকে অব্যাহতি পত্র আদায় করার অপমান সইতে না পেড়ে, দেবিদ্বার উপজেলার ছোটনা মডেল হাই স্কুল’র প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মোঃ আক্তার হোসেন(৩৫) শনিবার রাতে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।