লাকসামে সিভিল সার্জনের ঝটিকা সফর হাসপাতাল ডাক্তার-কর্মচারী শূন্য!

লাকসাম প্রতিনিধি. (খবর তরঙ্গ ডটকম) মঙ্গলবার সকাল ৮.৪০টায় কুমিল্লার সিভিল সার্জন ডাঃ আবুল কালাম সিদ্দিক লাকসাম সরকারি হাসপাতালে ঝটিকা পরিদর্শন করেন। এ সময় হাসপাতালটি চিকিৎসক ও কর্মচারী শূণ্য দেখে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করেন। নির্দিষ্ট সময়ে ডাক্তার, স্বাস্থ্য সহকারী, অফিস সহকারী, নার্স ও মালিসহ কেহই উপস্থিত ছিলেন না। এ চিত্র দেখে সিভিল সার্জন হতবাক হয়ে হাজিরা খাতাটি আয়ত্তে নেন। খবর পেয়ে দু’একজন অন্যান্যদের সংবাদ দিলে অনেকে ছুটে আসলেও ততক্ষনে হাজিরাখাতাটি সিভিল সার্জনের নিয়ন্ত্রনে চলে যাওয়া আঁৎকে উঠেন।  জানা গেছে, সকালে কুমিল্লা জেলা শহর থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার অতিক্রম করে কুমিল্লার সিভিল সার্জন লাকসাম সরকারি হাসপাতালে পৌঁছে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রায় প্রতিটি কক্ষ দেখতে পান জনমানবশূন্য। এ সময় খবর পেয়ে কয়েকজন কর্মচারী হাসপাতালে আসলেও তাদেরকে বিলম্বে আসার কারনে সতর্ক করেন এবং হাজিরা খাতায় তাদের স্বাক্ষরের সুযোগ দিয়ে প্রায় ঘন্টা খানেক অপেক্ষার পর সিভিল সার্জন চিকিৎসক ও অন্যান্য কর্মচারীদের অনুপস্থিত দেখিয়ে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করেন। পরে সিভিল সার্জন উপজেলার উত্তরদা, আজগরা ইউপি স্বাস্থ্য কেন্দ্রসহ পার্শ্ববর্তী নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চিওড়া স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। সকল স্থানেই প্রায় একই চিত্র।

সংশ্লি­ষ্টদের অনুপস্থিতি ও দায়িত্ব অবহেলা সম্পর্কে সিভিল সার্জন ডাঃ আবুল কালাম সিদ্দিক বলেন, প্রথমবারের মতো সকলকেই আত্মপক্ষ সমর্থন ও সংশোধনের জন্য সুযোগ দেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।