ফুলবাড়িতে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল অব্যাহত - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

ফুলবাড়িতে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল অব্যাহত



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

দিনাজপুর, নভেম্বর ২৫ (খবর তরঙ্গ ডটকম)-তেল-গ্যাস রক্ষাকমিটির সমাবেশে বাধা প্রদান ও ৬ দফা দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মত কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে দিনাজপুরের ফুলবাড়িতে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালিত হচ্ছে।সম্মিলিত পেশাজীবী সংগঠন ৬ দফা দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার হরতাল অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে।রোববার সকালে থানা ও জেলা প্রশাসকের সাথে সমঝোতা বৈঠকে বসেছেন সংগঠনটির নেতারা।
এদিকে হরতালের কারণে সকাল থেকেই স্কুল-কলেজ ও দোকান-পাঠ বন্ধ রয়েছে। কোন প্রকার যান চলাচল করছে না। ফুলবাড়িবাসী স্বতঃস্ফূর্তভাবে এই হরতাল পালন করছে।

দিনাজপুর থেকে ঢাকাগামী দ্রুতযান আন্তঃনগর ট্রেনটি ফুলবাড়ি স্টেশনে পৌঁছালে আন্দোলনকারীরা ট্রেনটি থামিয়ে ভাঙচুর করে। দিনাজপুর থেকে ঢাকা ও রাজশাহীগামী ট্রেনচলাচল বন্ধ রয়েছে।

অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ফুলবাড়িতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হরতালের সমর্থনে তেল-গ্যাস রক্ষাকমিটি ও ফুলবাড়ির পেশাজীবি সংগঠনের উদ্যোগে খন্ড-খন্ড মিছিল করে। পিকেটারা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে হরতাল পালন করছে।

 

উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা তোলার ব্যাপারে বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান এশিয়া এনার্জিকে সহায়তার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি চিঠি প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকাল থেকে হরতালের ডাক দেওয়া হয়।

এরপর প্রশাসনের পক্ষ থেকে হরতাল প্রত্যাহার করে দাবির বিষয়ে আলোচনার জন্য প্রস্তাব দেয়া হয় আন্দোলনরত জাতীয় কমিটির কাছে।

দিনাজপুরের ফুলবাড়িতে এক প্রতিবাদ সমাবেশের প্রাক্কালে শুক্রবার প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা।

এর প্রতিবাদে শনিবার সকাল থেকে সর্বাত্মক হরতাল ডাকে তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি।

কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে তাদের দাবি মানার বিষয়ে কোন সাড়া না পাওয়ায় এ কর্মসূচি বাড়ানো হয়েছে বলে জানাচ্ছেন ফুলবাড়ি তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ রক্ষা কমিটির সদস্য এসএম আবদুল্লাহ নূরুজ্জামান।

এরপর রোববার হরতাল কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবেই পালিত হয়েছে বলে কমিটি ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে।

নূরুজ্জামান বলেন, হরতাল স্বতঃস্ফূর্তভাবে পালিত হচ্ছে। ফুলবাড়ির লোকজন স্বেচ্ছায় ওষুধের দোকানও বন্ধ রেখেছে।

তিনি বলছেন, সরকার বাহাদুর বাহাদুরি করে এখানে ১৪৪ ধারা জারি করেছেন। কেনো করেছেন আমরা তা জানি না।

তিনি দাবি করেন, সরকারের কাছে বার্তা পৌঁছে দিতেই আমরা হরতালের সময়সীমা বাড়িয়েছি।

তবে দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজী সাংবাদিকদের বলেছেন যে, হরতাল প্রত্যাহার করে নেওয়ার আহবান জানিয়ে আন্দোলনকারীদের সাথে আলোচনা শুরু করেছেন।

তিনি বলেন, সামনে বাচ্চাদের পরীক্ষা। তাই তাদেরকে হরতাল প্রত্যাহার করতে অনুরোধ করেছি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথেও আমরা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি যে কীভাবে এই সমস্যার সুষ্ঠ সমাধানে পৌঁছানো যায়।

তিনি জানান, কর্তৃপক্ষ বা এশিয়া এনার্জির কেউ এখনো কাজ করতে আসেনি। শুধু সহযোগিতা চেয়ে তাদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। তারাও কাজ শুরু করবে বলে আমাদের জানায়নি। সবার সাথে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

আন্দোলনকারী আরেকটি সংগঠন সম্মিলিত পেশাজীবী সংগঠনের সমন্বয়ক ও পৌর মেয়র মানিক সরকার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি প্রত্যাহারের আগ পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য হরতালের ডাক দিয়েছেন ফুলবাড়িতে।

তবে জাতীয় কমিটির কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে দাবি পূরণের বিষয়ে আলোচনা করতে চাইলে তারা অবশ্যই আলোচনায় বসতে রাজি আছেন।

২০০৬ সালে ফুলবাড়িতে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লা খনি প্রকল্প বাতিল এবং উত্তোলনকারী কোম্পানি এশিয়া এনার্জিকে প্রত্যাহারের দাবিতে তেল-গ্যাস রক্ষা জাতীয় কমিটির মিছিল-সমাবেশে গুলি চালায় পুলিশ।

এতে তিনজন নিহত হয়।

ওই ঘটনার পর স্থানীয়রা লোকজন বিক্ষোভে ফেটে পড়লে তৎকালীন সরকার স্থানীয় গ্রামবাসীদের সাথে চুক্তি করলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।


জেলা এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০