চাঁদপুরের মেঘনা নদী থেকে জব্দকৃত প্রায় ২৩ কোটি টাকার অবৈধ জাল ধ্বংস

চাঁদপুরের মেঘনা নদী থেকে জব্দকৃত প্রায় ২৩ কোটি টাকার অবৈধ কারেণ্ট, কোনা ও মশাড়ি জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে। রোববার দুপুরে ৫নং চৌধুরীঘাট এলাকায় চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. ইসমাইল হোসেনের উপস্থিতে এসব জাল পোড়ানো হয়।জানা যায়, গত ৪মাস চাঁদপুরের মেঘনা নদীর মোহনা, বহরিয়া, হরিনা ফেরিঘাট, আলুর বাজার ঈশানবাল, চরভৈরবী, ষাটনল এলাকায় অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন প্রকার অবৈধ জাল জব্দ করা হয়।এর মধ্যে কারেণ্ট জাল সাড়ে ৩২ লাখ মিটার, যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১৯ কোটি টাকা। কোনা জাল ৬ লাখ মিটার, যার আনুমানিক মুল্য সাড়ে ৪ কোটি টাকা। এ ছাড়া ৪৮ হাজার মিটার মশাড়ি জাল, যার আনুমানিক মূল্য প্রায় অর্ধকোটি টাকা।

এ বিষয়ে চাঁদপুর কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লে. জহুরুল হক জানান, আগামীতেও মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণে কোস্টগার্ড এমন অভিযান অব্যহত রাখবে।

উল্লেখ্য, চাঁদপুরের ষাটনল থেকে চর আলেকজেন্ডার পর্যন্ত মা ইলিশ সংরক্ষণ ও জাটকা রক্ষা কর্মসূচি চলাকালে নদীতে যে কোনো জাল ফেলা নিষিদ্ধ থাকে।

কিন্তু নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে অবৈধভাবে জেলেরা নদীতে মাছ ধরা সময় অভিযান জালিয়ে এসব জাল আটক করা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।