ইউপি সদস্যের চাঁদা দাবি, জনতার গনধোলাই

ইউনিয়ন পরিষদের এক সদস্য ও তার পাঁচ সহযোগী চাঁদা চাইতে গিয়ে জনতার গনধোলাইের শিকার হন। জানা যায় সে নাটোরের বাগাতিপাড়ার দয়ারামপুর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য।বাগাতিপাড়া উপজেলার কৈজুড়ি গ্রামে বুধবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তিনটি মোটরসাইকেলও পুড়িয়ে দিয়েছে জনতা। তারা বাগাতিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আরশাদ আলীর বাড়িতে চাঁদা আদায় করতে গিয়েছিল।পুলিশের উপ-পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আজিজুল হকের বিরুদ্ধে একাধিক হত্যা মামলাসহ ডজনখানেক মামলা রয়েছে।

তিনি জানান, ইউপি সদস্য আজিজুল ও তার পাঁচ সহযোগী তিনটি মোটরসাইকেল নিয়ে ভোরে আরশাদ আলীর বাড়িতে আসে। তারা আরশাদ আলীর গলায় পিস্তল ধরে ৫ লাখ টাকা চাঁদা চায়। এ সময় বাড়ির লোকজন চিৎকার দিলে আশে পাশের কয়েক’শ লোক জড়ো হয়ে সবাইকে গণপিটুনী দিয়ে একটি ঘরে আটক রাখে।

সকালে খবর পেয়ে বাগাতিপাড়া থানা পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসে এবং একটি পিস্তল জব্দ করে।

বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশের সামনেই সন্ত্রাসীদের তিনটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়। বুধবার সকাল ১০টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে আটক সন্ত্রাসীদের জিজ্ঞাসাবাদ করছিলেন র‌্যাব ও পুলিশ।
তবে জনতার বিক্ষোভের মুখে তারা আটককৃতদের সেখান থেকে সরিয়ে নিতে পারছিলেন না।

আটক ইউপি সদস্য আজিজুল ঘটনার সময় নেশাগ্রস্ত ছিলেন বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।