ঝিনাইদহে ছাত্রী উত্যক্তের ঘটনায় চার গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১৫,পুলিশ মোতায়েন

ঝিনাইদহে সদর ও শৈলকুপা উপজেলার দুই ইউনিয়নের চার গ্রামবাসীর মধ্যে ছাত্রী উত্ত্যক্তের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবারের এ সংঘর্ষে অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছে। আতহদের মধ্যে ১০জনকে বিভিন্ন কে ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ সংঘর্ষ থামাতে একাধিক রাউন্ড টিয়রশেল নিক্ষেপ করে। এসময় ঝিনাইদহ কুষ্টিয়া সড়কের প্রায় দুঘন্টা যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।  রাস্তুার দু’পাশে প্রায় শতশত যানবাহন আটকা পড়ে  যাত্রীদের চরম দুর্ভোগে পড়তে হয়। ঝিনাইদহ সদর থানার উপপরিদর্শক (এস আই) মুনির হোসেন বাংলা নিউজকে জানান, ঝিনাইদহের আমতলা নামক স্থানে বুধবার মোকিমপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রিড়া প্রতিযোগিতায় এক স্কুল ছাত্রীকে উত্যক্ত করা নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের সুত্রপাত ঘটে। এ সংঘর্ষে সদর উপজেলা চরখাজুরা ও শৈলকুপা উপজেলার কুলচারা গ্রামবাসীর মধ্যে বুধবার সন্ধ্যায় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আমতলা নামক স্থানে চরখাজুরা,খাজুরা,সাতকুলচারা সহ চারটি গ্রামের মানুষ রামদা,ঢাল-সড়কি,ওইটপাটকেল নিয়ে ব্যাপক সংঘর্ষে লিপ্ত হয় পুলিশ জানায়। এদিকে হরিনাকুন্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফরিদউদ্দিন জানান, সংঘর্ষের সময় ঝিনাইদহ-কুষ্টিায়া সড়কে সকাল ৭ থেকে ৯টা পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে হরিনাকুন্ডু,শৈলকুপা ওঝিনাইদহ শহর থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করলে সংঘর্ষকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তঅ আব্দুল বারী জানান, ঠিক কতজন আহত হয়েছে তার পরিসংখ্যান তাদের কাছে নেই। তবে উভয় পক্ষের ১০/১৫ জন কমবেশি আহত হতে পারে। ঝিনাইদহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান জানান, পরিসিস্তি এখন নিয়ন্ত্রনে ঘটনাস্থলে তিন থানার পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।