মহীয়শি নারীর উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের এক মহিলা মিথ্যা মামলা দায়ের করে অবশেষে আদালতে আপোষ দিয়েছে। সুত্রে জানা গেছে, টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের বাসিন্দা মো.জাবেদের স্ত্রী ছেনুয়ারা বেগম (৩০) তার শশুর লালমতি ও স্থানীয় ৫ নং ওয়ার্ডের সব্বির মেম্বারের প্ররোচনায় পড়ে গত ৮ মাস আগে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছিল টেকনাফ জি.আর কোর্টে। অবশেষে ১৮ এপ্রিল বাদী নিজে কোর্টে হাজির হয়ে উক্ত মিথ্যা মামলাটি তুলে নিয়ে ঐ মামলার সংশ্লিষ্ট আসামীর সাথে আপোষ করে দফা রফা সম্পন্ন করেন। বিবাদীর পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন, এড. আব্দুল আমিন। বাদীর পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন এড. শামসুল আলম। মিমাংশিত মামলা নং- ৬৩/২০১২। এ বিষয়ে মামলার বাদীনি প্রতিবেদককে জানান, ৮ মাস পূর্বে মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে আমার শশুর লাল মতি ও স্থানীয় মেম্বার সব্বিরের প্ররোচনার শিকার হয়ে আমি মামলাটি দায়ের করেছিলাম। কিন্তু আল্লাহ, রাসুল (সা.) ও মৃত্যুর কথা স্মরণ করে নিজে কক্সবাজার আদালতে হাজির হয়ে স্বেচ্ছায় স্বজ্ঞানে বিবাদীর পক্ষে বাস্তব ঘটনাটি তুলে ধরেছি। উক্ত ঘটনার সাথে বিবাদীরা কোনভাবেই জড়িত ছিলনা। এব্যাপারে বিবাদীর পক্ষে আবুল কালাম সওদাগর সাবরাংবাসীকে উদ্দেশ্য করে বলেন দীর্ঘ ৮ মাস যাবত এই মিথ্যা মামলার ভার মাথায় নিয়ে বিভিন্ন হয়রানি, হুমকি-ধমকি, অবশেষে ঘরছাড়া পরে জেলহাজত ভোগ করে, অতি মানবেতর জীবন যাপন করতে হয়েছে। এ ঘটনায় যারা প্রকৃত অপরাধী তাদের ধরে আইনের কাছে সোপর্দ করে মুখোশ খোলে দেওয়া উচিৎ। নচেৎ সমাজের দুর্বল ও অসহায় মানুষ গুলো বারবার তাদের দ্বারা প্রতারিত হয়ে হয়রানির শিকার হবে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।