হেফাজত-জামায়াতের কাঁধে ভর করে ক্ষমতায় আসতে চায় খালেদা

‘জনগণ থেকে বিছিন্ন হয়ে হেফাজত-জামায়াতের কাঁধে ভর করে ক্ষমতায় আসতে চায় খালেদা জিয়া। সকল ক্ষমতার উৎস জনগণ, হেফাজত-জামায়াত নয়। আপনাকে হেফাজত-জামায়াত রক্ষা করতে পারবে না। ইসলাম হেফাজতের নামে শাপলা চত্বরে হেফাজত-জামায়াতের তান্ডবের দায়ভার আপনাকেও নিতে হবে’।
শনিবার বিকেলে কুমিল্লার  চান্দিনায় দোলাই  নবাবপুর আহসান উল্লাহ্ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ‘সার্বজনীন শিক্ষা সম্পর্কিত আলোচনা সভায়’ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খাদ্য মন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক এম.পি এ কথা বলেন।
তিনি তার বক্তৃতায় আরও বলেন, হেফাজতের নামে যারা মাদ্রাসার কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ঢাকার শাপলা চত্বরে অনিশ্চয়তার মধ্যে ছেড়ে দিয়েছে তাদের চিহ্নিত করে বিচারের আওতায় আনা হবে। হরতালের নামে গাড়িতে আগুন, এ্যাম্বুলেন্সে আগুন, মানুষ খুন করে ক্ষমতায় আসা যায় না। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে যারা গৃহযুদ্ধ বলে, স্বাধীনতা বিরোধী প্রেতাত্মা যাদের ঘাড়ে ভর করে আছে, জনগণকে নিয়ে আওয়ামীলীগ সেই স্বাধীনতা বিরোধীদের প্রতিহত করবে’।
তিনি দেশ ও জনগণের স্বার্থে বিরোধীদলীয় নেত্রীর প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, জ্বালাও-পোড়াও, হেফাজত-জামায়াতের রাজনীতি বন্ধ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সংলাপে বসুন। সংলাপের মাধ্যমে সকল সমস্যার সমাধান সম্ভব।
আলোচনা সভায় চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাকির হোসেন এর সভাপতিত্বে এসময় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন, সরকারি প্রতিশ্র“তি সম্পর্কীয় সংসদীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মো. আলী আশরাফ এম.পি, কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।
অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন, কুমিল্লা জেলা পরিষদ প্রশাসক আলহাজ্ব মো. ওমর ফারুক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) গোলামুর রহমান, চান্দিনা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. নাজমুল আহসান মজুমদার রিপন, জেলা পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মো. আইউব আলী, সাধারণ সম্পাদক মো. তপন বকসী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মোসলেহ উদ্দিন মোসলেম, জেলা শিক্ষা অফিসার আবদুর রশিদ, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. ইকরাম উল্লাহ্ চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা মো. শহিদ উল্লাহ্, চেয়ারম্যান মো. আবু তাহের ভূইয়া, অধ্যক্ষ মাওলানা আলী নেওয়াজ ওয়াজেদী, মাওলানা আরিফুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক মোজাহারুল ইসলাম প্রমুখ।
এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোসাম্মৎ সাফিয়া আক্তার,  পৌর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুল ইসলাম কমিশনার, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি মুনতাকিম আশরাফ টিটু, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী গোলাম দস্তগীর পাপন, মো. নূরুল ইসলাম তুহিন, পৌর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মনির খন্দকার, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. মেহেদী হাসান, পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি কাজী আখলাকুর রহমান জুয়েল, চেয়ারম্যান শাহ্ সেলিম প্রধান, হারুন-অর-রশিদ চেয়ারম্যান, জোয়াগ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুস সালাম সওদাগর, বাড়েরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. রৌশন আলী প্রধান, সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম ভূইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. খোরশেদ আলম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ যুগ্ম আহবায়ক মো. আবদুল মান্নান ভূইয়া প্রমুখ।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।