আশুলিয়ায় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ২০

ফের অশান্ত হয়ে ওঠেছে শান্ত আশুলিয়া । শনিবার সকালে ন্যূনতম মুজরি আট হাজার টাকার দাবিতে আন্দোলন করতে গেলে সংঘর্ষ হয়েছে পুলিশের সঙ্গে। এতে আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন।

এ সময় শ্রমিকরা অবরোধ করলে বন্ধ হয়ে যায় বিশমাইল জিরাবো সড়কে যান চলাচল। বিক্ষোভ সহিংসতার আশংকায় এসব অঞ্চলের পাঁচটি তৈরি পোশাক কারখানায় ছুটি ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ বলেছে, শনিবার সকাল সকাল ১০টার দিকে কাজে যোগ দিতে এসে কারখানা বন্ধের নোটিশ দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়ে আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকার নোভেল কমফোর্ট কম্পোজিট লিমিটেড কারখানার শ্রমিকরা।

এ সময় শ্রমিকরা জড়ো হয়ে পার্শ্ববর্তী আজমত গ্রুপ ডেকো গ্রুপ, কমফোর্ট কম্পোজিত লিমিটেড ও ক্রস ওয়্যার লিমিটেডসহ কয়েকটি কারখানায় ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এ অঞ্চলের পোশাক কারখানায়।এ সময় এসব কারখানায় ছুটি ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।পরে ছুটি ঘোষিত কারখানাগুলো থেকে বের হয়ে আসা শ্রমিকরা একজোট হয়ে অবস্থান নেয় বিশমাইল-জিরাবো সড়কে।
অবরোধের মুখে বন্ধ হয়ে যায় এ সড়কে যান চলাচল।

পুলিশ শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরিয়ে দিতে লাঠিচার্জ করলে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। শুরু হয় ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া।পরে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে করে শ্রমিকদেরকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এদিকে এ অঞ্চল ছাড়া সাভার ও  আশুলিয়া শিল্পাঞ্চলে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

এসব অঞ্চলের পোশাক কারখানাগুলোতে কাজ চলছে শান্তিপূর্ণভাবে। তবে যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাসহ  কারখানাগুলোর সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।এ ছাড়াও পুলিশের জলকামান ও সাজোয়া যানের টহল অব্যাহত রয়েছে।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।