রায়পুরে সেই বায়োজিদের বিরুদ্ধে দুই নেতার সংবাদ সম্মেলন - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

রায়পুরে সেই বায়োজিদের বিরুদ্ধে দুই নেতার সংবাদ সম্মেলন



তাবারক হোসেন আজাদ, রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও জেলা পরিষদ প্রশাসকের এপিএস পরিচয়দানকারী বায়োজিদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে তার দলের দুই নেতা সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) সকালে শহরের একটি অফিসে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কামরুল হাসান রাছেল ও সদস্য এবং পৌর শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হায়দার রিংক দুই নেতা সংবাদ সম্মেলন করেন।
তারা বলেন, বায়োজিদ ভূঁইয়া প্রতারক ও ঠকবাজ প্রকৃতির লোক হয়। দলের কেন্দ্রীয় নেতার হাত ধরে তার উত্থান এবং মানুষের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে কোটি টাকা হাতিয়ে পরিবার নিয়ে হঠাৎ আবার উধাও হয়ে যায়। এ ঘটনায় এ সংক্রান্ত সংবাদ বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় ও অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। গত সেপ্টেম্বর মাসে কামরুল হাসান রাছেল নিরাপত্তা চেয়ে বায়োজিদের বিরুদ্ধে রায়পুর থানায় একটি সাধারণ ডায়রিও করেছেন।
দুই নেতা আরো জানান, গত ৮ অক্টোবর ‘সংবাদ সম্মেলনে বায়োজিদ ভূঁইয়ার অভিযোগ অস্বীকার’ শিরোনামে তাদের উপস্থিতিতে দিয়ে যে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে তা মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করেছেন। এসময় তারা ব্যবসায়িক কাজে লক্ষ্মীপুরে ছিলেন বলে জানান। লক্ষ্মীপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক উপকূল কন্ঠ পত্রিকায় এ প্রতিবেদক বায়োজিদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে এ রিপোর্টটি প্রকাশ করেছেন।
এছাড়াও দলের নাম ও জেলা পরিষদ প্রশাসকের এপিএসের নাম ভাঙ্গিয়ে বায়োজিদ রায়পুরের ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন  লোকজনের কাছ থেকে চাকুরী দেয়ার নামে কোটি টাকা হাতিয়ে পালিয়েছেন। তাদের মধ্যে রনজিত নামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীর ৭৮ লাখ টাকা, লুধুয়া এমএম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলমগীর হোসেনের মাধ্যমে স্কুলের টাকা বরাদ্দ দেয়ার নামে কয়েক লাখ টাকা এবং জেলা পরিষদের জায়গায় ও দোকান বরাদ্দের নামে এসব টাকা আদায় করেন। এ সংক্রান্ত সংবাদ তার ছবিসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে পুরো জেলায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পরে জেলা পরিষদের প্রশাসক বাধ্য হয়ে ওমান থেকে তাকে ফিরিয়ে আনেন। রায়পুরে এসে সে তার লোকজন নিয়ে দুই ব্যবসায়ীর কিছু টাকা পরিশোধ করে এবং কোনো দেনাপাওনা নেই এই মর্মে অন্যদের কাছ থেকে সাদা স্ট্যাম্পে জোরপূর্বক দস্তখত নিয়ে আবার উধাও হয়ে যায়। এ ঘটনায় জেলার আ.লীগের এক প্রভাবশালী নেতা প্রধানমন্ত্রীর নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়ে বিচার দাবি জানান।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর


এ সম্পর্কিত আরো খবর

জেলা এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ