বিএনপি নেতা হিরু-হুমায়ুনের সন্ধানের দাবীতে উত্তাল লাকসাম

কুমিল্লার লাকসামে র‌্যাবের হাতে গুম হওয়া উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম হিরু ও পৌর বিএনপির সভাপতি হুমায়ুন কবির পারভেজের সন্ধানের দাবীতে উত্তাল লাকসামবাসী। শনিবার বিকেলে দৌলতগঞ্জ বাজারের রেলষ্টেশন মসজিদ মাঠে স্থানীয় বিএনপি উদ্দেগে সাবেক এমপি এম,আনোয়ারুল আজিম এর নেতৃত্বে এক বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ  ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির দলিয় সাবেক এমপি ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য কর্নেল (অব:) এম,আনোয়ারুল আজিম বলেন গত ২৭শে নভেম্বর রাত সাড়ে ৯টায় কুমিল্লায় আহত দলীয় কর্মীদের দেখতে যাওয়ার পথে সদর দক্ষিনের আলীশ্বর নামক স্থানে তাদের বহনকারী এ্যাম্বুলেন্সটি থামিয়ে বিএনপি নেতা হিরু, হুমায়ুন ও জসিমকে কুমিল্লা র‌্যাব-১১ “ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানী-০২(সিপিসি-২) পরিচয় নং৬০৯২, কর্মকতার নাম শাহজান আলী। প্রথিমধ্যে কুমিল্লা’র বিশ্বরোড পদুয়া বাজার নামক স্থানে হিরু হুমায়ুন কে রেখে আরেকটি গাড়ীতে জসিম উদ্দীনকে তুলে দিয়ে হিরু-হুমায়ুনকে বহন করা গাড়ীটি চলে যায়। রাতা ১২টার কিছু পরে লাকসাম থানায় জসিমকে হস্তার করলেও গত তিন দিন ধরে ওই দু’নেতা নিখোঁজ রয়েছেন।

সাবেক এমপি কর্নেল আজিম লাকসাম বাসীকে উদ্দেশ্যে বলেন- হিরু-হুমায়ুন লাকসামে শান্তির কল্যানে কাজ করছে, কিন্তু সরকারের বিশেষ মহলের ইন্ধনে বিএনপিকে রাজনৈতিক ভাবে ক্ষতি গ্রস্থ করার জন্য ২দুই নেতাকে গুম করেছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। অভিলম্বে গুম হওয়া নেতা এবং লাকসামে আটককৃত নেতাদের মুক্তির দাবী করেন অন্যথায়  মঙ্গলবার থেকে লাগাতার হরতালের হুমকি দেন। যদিও রোববার থেকে লাকসামে হরতালের কর্মসূচী ঘোষনা ছিল অবরোধের কারনে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএম তাজুল ইসলাম খোকন, উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান বাদল, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: শাহআলম, পৌর সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন মিলন, বিএনপি নেতা আলহাজ্ব নুর হোসেন চেয়াম্যান, আব্দুল জলিল, ইয়াছিন আলী, মাইনুল হক মজু: মিঠু প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।