সোনাগাজীতে সিএনজিতে অগ্নিসংযোগ॥ ককটেল বিস্ফোরণ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া॥ আহত ২ ॥ গ্রেফতার ১

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল বাতিল, নিরপে তত্তাবধায়ক সরকার ও আটককৃত কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবিতে দেশব্যাপি বিএনপি জামায়াত নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের ডাকে ১৩১ ঘন্টার অবরোধের চতুর্থ দিন মঙ্গলবার সোনাগাজী উপজেলার সোনাগাজী-ফেনী সড়কে অবরোধকারীরা একটি সিএনজি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ সহ বেশ কয়েকটি গাড়ি ও অটোরিক্সায় হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এ সময় বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকায় আতংক সৃষ্টি করে দুর্বৃত্তরা।  এ সময় উপজেলা মতিগঞ্জ ইউনিয়নের ছাদেকের টেক নামক স্থানে  অবরোধ সমর্থকদের সাথে সরকার দলীয় স্থানীয় নেতাকর্মীদের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় অবরোধকারিরা যুবলীগ কর্মী সবুজ (২৮) ও রাসেদ  (৩০) কে লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ফয়েজুল কবির, সাধারণ সম্পাদক এড. রফিকুল ইসলাম খোকন ঘটনাস্থলে যাওয়ার চেষ্টা করলে ফেনী-সোনাগাজী সড়কের সাতবাড়িয়া ব্রীজ সংলগ্ন রাস্তায় অবরোধকারিরা গাছের গুটি ও টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে তাদের গতিরোধ ও তাদের কে ধাওয়া করে। খবর পেয়ে সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সুভাষ চন্দ্র পালের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় সোনাগাজী উপজেলার সর্বত্রই আ’লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। অপর দিকে সোমবার গভীর রাতে সোনাগাজী মডেল থানা পুলিশ পিকেটার সন্দেহে উপজেলার শাহাপুর গ্রামের আশ্রায়ণ কেন্দ্র থেকে বিএনপি কর্মী মোশারফ হোসেন (৩০) কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। এ দিকে অবরোধের সমর্থনে মঙ্গলবার বিকেলে সোনাগাজী পৌরশহরে বিােভ মিছিল বের করে উপজেলা ও পৌর যুবদল, ছাত্রদল। মিছিলের অগ্রভাগে ছিলেন সাবেক উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দিন খোকন চেয়ারম্যান, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ চেয়ারম্যান, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সিরাজ উদ্দিন দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক একরামুল হক, উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি মঞ্জুর হোসেন বাবর, উপজেলা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি মামুন পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক খুরশিদ আলম ভূঁঞা, যুগ্ম সম্পাদক ইকবাল হোসেন, পৌর যুবদলের সভাপতি সিরাজুল হক, সাধারণ সম্পাদক ইউএস দুলাল, যুগ্ম সম্পাদক খুরশিদ আলম, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি সৈয়দ আলম ভূঁঞা, পৌর ছাত্রদলের সভাপতি নিজাম উদ্দিন, কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি হাসান মাহমুদ ও বুলবুল প্রমূখ। মিছিলটি পৌরশহরের প্রধান সড়কগুলো পদণি শেষে পশ্চিম বাজারে গিয়ে শেষ হয়। এছাড়াও একই দাবিতে শহরে বিােভ মিছিল করেছে জামায়াত শিবির। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন জেলা জামায়াতের মজলিশ সুরা সদস্য ইঞ্জিনিয়ার ফখরুদ্দিন, মাও. কালিম উল্যাহ, উপজেলা আমীর মাও. মো. মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক একেএম বদরুদ্দৌজা, পৌর সেক্রেটারি আবদুল মান্নান, শিবির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান প্রমূখ। সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার সুভাষ চন্দ্র পাল ঘটনাগুলোর সত্যতা স্বিকার করে জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে যে কোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা প্রতিরোধে বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।