মোবারকগঞ্জ চিনিকলের ৪৮ কোটি টাকার চিনি অবিক্রিত রেখেই ২০১৩-১৪ আখ মাড়াই মৌসুম শুরু

ঝিনাইদহের মোবারকগঞ্জ চিনিকলে ২০১১-১২ ও ২০১২-১৩ আখ মাড়াই মৌসুমে উৎপাদিত প্রায়  ৪৮ কোটি টাকার  ৯ হাজার ৭ শ ২৮ মেট্রিকটন চিনি অবিক্রিত রেখেই  গতকাল শুক্রবার বিকালে ২০১৩-১৪ সালের আখ মাড়াই উদ্বোধন করা হয়েছে। ১ লাখ ৫০ হাজার মেট্রিকটন আখ মাড়াই করে ৯ হাজার ৫শ মেট্রিকটন চিনি আহরনের লক্ষমাত্র নির্ধারণ করা হয়েছে।  মিল জোনের প্রবীন ও সবচেয়ে বেশি পরিমানের আখচাষী  আব্দুল কাদের ও শ্রমিকদের পক্ষে মো: তমিজ উদ্দিন ফোরান মিল হাউজের ডোঙ্গায় আখ ফেলে  উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেণ মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: দেলোয়ার হোসেন, শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মসিউর রহমান স্বপন, সম্পাদক কাজী সেলিম প্রমুখ।

মোবারকগঞ্জ চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেলোয়ার হোসেন জানান, ২০১৩-১৪ আখ মাড়াই মৌসুমে ১ লাখ ৫০ হাজার  মেট্রিকটন আখ মাড়াই করে প্রায় ৯ হাজার ৫শ মেট্রিক টন চিনি আহরোন করা হবে। এবার আখ মাড়ায় ১২০ কার্যদিবস ধরা হয়েছে। চিনি আহরের হার ৭.৭৫।  তিনি আরো জানান,মোবারকগঞ্জ চিনিকলে বর্তমানে ৯ হাজার ৭শ’ ২৮ মেট্রিকটন চিনি মজুদ রয়েছে। যার মুল্য ৪৮ কোটি টাকা। সর্বশেষ ২০১২-১৩ মৌসুমে ১ লাখ ৩৩ হাজার ৭শ’ ২৭ মেট্রিকটন আখ মাড়াই করে ৯ হাজার ৪০ মেট্রিকটন চিনি উৎপাদিত হয়। কিন্তু এই মৌসুমে উৎপাদিত চিনি একটুও বিক্রি করা সম্ভব হয়নি। এদিকে এর ২০১১-১২ মৌসুমের চিনি সহ বর্তমানে মিলটিতে মজুদ রয়েছে ৪৮ কোটি টাকা মুল্যের ৯ হাজার ৭শ’ ২৮ মেট্রিকটন চিনি। ফলে চিনিকলের গোডাউনে চিনি মজুদেও ধারন মতা ছাড়িয়ে গেছে।  ফলে  ২০১৩-১৪ মৌসুমের উৎপাদিত চিনির সংরণ নিয়েও বিপাকে পড়েছেন কর্তপ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।