সাংবাদিককে হত্যার হুমকি, মা-চাচাকে মারধর

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সাংবাদিক এম আর সুমনের গ্রামের বাড়ী রামগঞ্জ উপজেলার মাসিমপুরে বুধবার দুপুরে ভূমিদস্যু নুরনবীর নেতৃত্বে ১০/১২ জনের সশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে তার মা ও চাচাকে বেধম মারধর করে এবং বাগানের বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কর্তন করে। এঘটনায় রাতে সাংবাদিক সুমন ও তার চাচা আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে রামগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়রী ও অভিযোগ করেছেন। খবর পেয়ে  সাংবাদিক, বিভিন্ন দলের নেতাকর্মী ও  পুলিশ ঘটনাস্থাল পরির্দশন করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সাংবাদিকের চাচা আব্দুল মন্নান জানান, কয়েকদিন ধরে চন্ডিপুর ইউপির মাসিমপুর গ্রামের ভূমিদস্যু রায়পুর এলএম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী নুরনবী সাংবাদিক সুমনের পৈত্রিক সম্পতি জবর দখলের পায়তারা করে আসছিল। বুধবার দুপুরে নুরনবী তার লোকদের নিয়ে জমি দখলের চেষ্টা করে। এসময় বাধা দেওয়া সুমনের মা ও তাকে বেধম মারধর করে। এসময় নুরনবীর লোকজন বাগানের প্রায় ৩০/৩৫ ফল ও বনজগাছ কেটে ফেলে। নুরনবী এলাকাবাসীসহ নানা লোকের সাথে অনিয়ম-দূর্নিতী ও নানা অপকর্ম করার ঘটনা নিয়ে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। নুরনবী ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিক সুমনের অনুপস্থিতিতে বাড়ীতে এসে ভাড়াটে লোকদের নিয়ে এঘটনা ঘটায়।

পরে সাংবাদিক সুমনকে যেখানে পাওয়া যাবে সেখানেই তার এবং পরিবারের চরম ক্ষতি করা হবে বলে হুমকি দিয়ে যায়। এঘটনায় পুলিশকে সাংবাদ দিলে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগে নুরনবী তার লোদের নিয়ে পালিয়ে যায়।
এঘটনায় লক্ষ্মীপুর-১ রামগঞ্জের এমপি নাজিম উদ্দিন, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা ইয়াছিন আলী, উপজেলা আ’লীগ সভাপতি মো. শাহজাহান, পৌর মেয়র বেল্লাল আহম্মেদ, সাবেক ছাত্রনেতা ভিপি আব্দুর রহিম, সাংবাদিক তাবারক হোসেন আজাদ, আবুল কালাম আজাদ, জহিরুল ইসলাম, হারুনর রশিদ, এ,কে,এম মিজানুর রহমান মুকুল, আবু সাঈদ মহন, দেলোয়ার হোসেন মৃধা, বেলায়েত হোসেন বাচ্চু, খালেদ মাহমুদ ফারুক প্রমুখ নিন্দা জানিয়েছেন এবং জড়িতদের গ্রেপ্তার করে আইনানুক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ জাবেদুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ যাওয়ার আগেই অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। এঘটনায় সাংবাদিক ও তার চাচা পৃথক অভিযোগ দিয়েছেন। তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।