ঢাকায় পুলিশের গুলিতে নিহত মনসুর হত্যাকান্ডের নিন্দা ও প্রতিবাদ

ঢাকার মালিবাগে ১৮ দলীয় জোটের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে পুলিশের গুলিতে নিহত শিবির নেতা হাফেজ মনসুর আহমদ এর নির্মম হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ১৮ দলীয় জোট চাঁদপুর জেলা শাখার আহ্বায়ক জেলা বিএনপি’র সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মমিনুল হক, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক জেলা জামায়াতের আমীর এএইচ আহমদ উল্যাহ মিয়া, সদস্য সচিব জেলা বিএনপি’র সেক্রেটারী শেখ ফরিদ আহমদ মানিক, যুগ্ম সচিব জেলা জামায়াত সেক্রেটারী মাওলানা বিল্লাল হোসেন মিয়াজী, যুগ্ম সচিব খেলাফত মজলিশের সেক্রেটারী মাওলানা জোনায়েদ হাসান মোক্তার, চাঁদপুর শহর জামায়াতের আমীর এডভোকেট শাহজাহান মিয়া, শহর সেক্রেটারী অধ্যাপক আরিফ উল্যাহ, সদর উপজেলা আমীর জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, সেক্রেটারী শাহজাহান খান, ছাত্রশিবিরের শহর সভাপতি মোস্তফা কাউছার, সেক্রেটারী ইসমাইল হোসেন এক যুক্ত বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন সরকার গায়ের জোরে ক্ষমতায় টিকে থাকার অসৎ উদ্দেশ্যে দেশে একদলীয় প্রহসনের নির্বাচনের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে।

দেশের ১৬ কোটি মানুষকে জিম্মীকরে দেশকে ধ্বংসের শেষ প্রান্তে নিয়ে গেছে। বিরোধী দলের গণতান্ত্রিক কর্মসূচিতে রাষ্ট্রীয় বাহিনী লেলিয়ে দিয়ে পাখির মতো নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করছে নিরিহ এবং নিরস্ত্র জনগণকে। অবিলম্বে হত্যা নির্যাতন ও প্রহসনের নির্বাচন স্থগিত করে তত্ত্বাবধায়ক সরকার মেনে নিতে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিৎ। সরকারী জুলুম নির্যাতনে গোটা জাতি গণবন্ধি। অবিলম্বে হাফেজ মনসুর আহমেদের হত্যাকারী পুলিশ সদস্যদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য নেতৃবৃন্দ আহ্বান জানান। একই সাথে জালিম সরকারের বিরুদ্ধে গণআন্দোলনে ঝাপিয়ে পড়ার জন্যও দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।