মালিবাগে পুলিশের গুলিতে নিহত হাফেজ মুনসুরের দাফন সম্পন্ন

১৮ দলিয় জোট নেত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আহ্বানে মার্চ ফর ডেমক্রেসিতে অংশ নিতে গত ২৯ ডিসেম্বর ঢাকার মালিবাগ থেকে মিছিল বের করে ইসলামী ছাত্রশিবির। এ সময় পুলিশের গুলিতে নিহত হয় চাঁদপুর সদর উপজেলার নূরুল্লাপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আব্দুর রাজ্জাক প্রধানীয়ার ৬ষ্ঠ ছেলে ঢাকা বিমান বন্দর থানার ২নং ওয়ার্ড শিবির সভাপতি হাফেজ মোঃ মুনসুর আহম্মেদ প্রধানীয়া। আজ সন্ধা ৬.১০ মিনিটে মুন্সির হাট বাজার মাদরাসা মাঠে তার নামাজে যানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাযায় ইমামতি করেন শহীদের ভগ্নিপতি বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন মাওলানা নূরুর রহমান মাদানী। জানাযা পূর্ব সমাবেশে শহীদের চাচা মুহাম্মদ সাগর প্রধানীয়ার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন শহীদ মুনছুরের চাচা আব্দুল মোতালেব প্রধানীয়া, আব্দুর রব প্রধানীয়া, চাঁদপুর জেলা ১৮ দলীয় জোটের যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা জামায়াতের আমীর এ এইচ আহমদ উল্যাহ মিয়া। সদর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি দেওয়ান মোহাম্মদ শফিকুজ্জামান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের ঢাকা মহানগর উত্তরের শিক্ষা সম্পাদক মুহাম্মদ রুহুল আমিন খান, বিমান বন্দর থানা সভাপতি মনোয়ার হোসাইন, চাঁদপুর শহর শিবিরের সেক্রেটারী মুহাম্মদ ইসমাঈল হোসেন খান, এইচআরডি সম্পাদক এস.এম মামুন খান, জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর অধ্যক্ষ আব্দুর রহিম পাটওয়ারী, সেক্রেটারী বিল্লাল হোসেন মিয়াজী, সদর উপজেলা সেক্রেটারী মুহাম্মদ শাহজাহান খান, শহর আমীর এডভোকেট শাহজাহান মিয়া, শহর নায়েবে আমীর এডভোকেট শেখ আবুল খায়ের মুহাম্মদ ছালেহ সহ শহীদের আত্মীয়-স্বজন ও এলাকাবাসী।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।