নাফ নদীতে যাত্রী বোঝাই নৌকাডুবিতে মহিলার লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ ৮

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তবর্তী নাফ নদীতে যাত্রী বোঝাই নৌকাডুবির ঘটনায় এক মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়া খাল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

সোমবার নয়াপাড়া ঘাট থেকে মিয়ানমার গউজিবিল ঘাট এলাকায় আদম বোঝাই একটি নৌকা ১৮ জন মাঝিমাল্লা ও যাত্রী নিয়ে ফিরে যাওয়ার সময় নাফনদীর মাঝপথে গেলে হঠাৎ বৈরী বাতাসের কবলে পড়ে ডুবে যায়। অনেক খোঁজাখুজির পরে নয়জনকে উদ্ধার করা গেলেও তিন শিশু, নারী এবং মাঝি-মাল্লাসহ নয়জন নিখোঁজ ছিল।

এদিকে, মঙ্গলবার ভোর আনুমানিক ভোর সাড়ে ছয়টার দিকে হ্নীলা চৌধুরী পাড়া ব্রিজের নিচে খালে ভাসমান অবস্থায় একটি মহিলার লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত লাশটি মিয়ানমারের মংডু গউজার বিল এলাকার মাওলানা জাকারিয়ার স্ত্রী ও মৃত এজাহার মিয়ার মেয়ে ফরিজার (৫০) লাশ বলে জানায় পুলিশ।

পুলিশ লাশের সঙ্গে একটি মোবাইল সেট, তসবিহ ও প্রেসক্রিপশনও উদ্ধার করে। লাশটি লেদা আনরেজিষ্টার ক্যাম্প নিবাসী কালা মিয়ার পুত্র মৌলভী আবদুল হাকিম নামের এক স্বজনের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। মহিলাটির স্বজন আবদুল হাকিম ও মৌলভী ইদ্রিস জানিয়েছেন, চার দিন আগে মৃত ফরিজা সপরিবারে বাংলাদেশে চিকিৎসা নিতে এসেছিলেন। সোমবার চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পথে নৌকাডুবির ঘটনায় তিনি নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় মহিলার স্বামী মাওলানা জাকারিয়াসহ আরো আট আরোহী নিখোঁজ রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।