মনোহরগঞ্জে জাপা প্রার্থীর গণসংযোগে হামলা, গাড়ি ভাংচুর, আহত ১০

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে জাতীয়পার্টির প্রার্থীর গণসংযোগে হামলা চালিয়েছে কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে দৃর্বৃত্তরা। হামলায় জাতীয়পার্টির কয়েকজন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয়। এ ঘটনাটি ঘটে উপজেলার লণপুর এলাকার পরানপুরে।
জানা যায়, আসন্ন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয়পার্টির সমর্থিত প্রার্থী প্রফেসর ড. গোলাম মোস্তফা লাকসাম-মনোহরগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ শেষে লণপুর বাজার থেকে বাড়ী ফেরার পথে পরানপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে কয়েকজন সন্ত্রাসী তার গাড়ি বহরে হামলা চালায়।
এ সময় সন্ত্রাসী হামলায় জাপা কর্মী হেলাল, মিলন, সেলিম, ইয়াছিন, শরীফ, মাকসুদ সহ ১০জন নেতাকর্মী গুরুতর আহত হয় ও ৪টি সিএনজি ও প্রচার মাইক ভাংচুর করে ।
ওই দিন রাতে জাপা প্রার্থীর গণসংযোগে হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে প্রফেসর ড. গোলাম মোস্তফা তাৎনিক তার বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে বলেন- আমি নির্বাচন না করার জন্য বিভিন্ন মহল আমাকে একাধিক বার ব্যক্তি পাঠিয়ে ও মোবাইলে নিষেধ করে। কিন্তু আমি জাতীয়পার্টি চেয়ারম্যানের অনুমতি ও নেতাকর্মীদের সমর্থন নিয়ে নির্বাচনী কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছি। যার ফলে, কু-চক্রি মহল আমার জন সমর্থনে ঈর্ষানীত হয়ে আমার গণসংযোগে হামলা করে গাড়ি ভাংচুর ও নেতাকর্মীদের পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে। আমি হামলাকারীদের গ্রেপ্তার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- খিলা ইউনিয়ন জাতীয়পার্টির সভাপতি মোহাম্মদ হোসেন হিরু মজুমদার, সেক্রেটারী আলী নোয়াব মেম্বার, মনোহরগঞ্জ উপজেলা যুব সংহতির সভাপতি গোলাম মাওলা বেলাল, উত্তরদা ইউনিয়ন যুব সংহতির সভাপতি মোশারফ হোসেনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
এ দিকে জাতীয়পার্টির প্রার্থীর গণসংযোগের গাড়ি বহরে হামলার সংবাদ পেয়ে মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই আমজাদ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
এ বিষয়ে মনোহরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ হারুন অর রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হামলাকারীদের সনাক্ত এবং গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।