বোরহানউদ্দিনে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-১০

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী মুলাইপত্তন গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একই বাড়ীর কাঞ্চন মিয়া গংদের হামলায় ছিদ্দিক গংদের ১০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনাটি বুধবার সকাল অনুমান ৭টার দিকে ঘটেছে। এদের মধ্যে কয়েকজনকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার টবগী মুলাইপত্তন গ্রামের ৯নং ওয়ার্ডে বাসা বাড়ীর কাঞ্চন মিয়া গং ও ছিদ্দিক গংদের মধ্যে এস,এ ১৪৪, ১৪২, ৭৯৯, ১৪৩, ৭৮৯, ৭৯৮, ৫৯৭ ও ৭৭১ খতিয়ানে এক একর ওয়ারিশ জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এ ঘটনায় ছিদ্দিক গং বাদী হয়ে ১৯/১২/১৩ ইং তারিখে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। কিন্তু প্রশাসন এতে আইনগত কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি বলে অভিযোগ করে ভুক্তভুগিরা। এদিকে স্যাটেলম্যান্ট অফিসে ওয়ারিশ দাবী করে মামলা দায়ের করেন ছিদ্দিক গং।

ওই মামলার গত ৩০/১২/১৩ তারিখে বিচার কাজ শুরু হলে ছিদ্দিক গংদের দাবীতে মামলা পরবর্তী শুনানীর জন্য বলা হয়। এতে কাঞ্চন গংরা ছিদ্দিক গংদের উপর চওড়া হয়ে উঠে। ওই ঘটনার জের ধরে বুধবার সকালে মোঃ ইলিয়াছ ও কামালের মধ্যে বাকবিতন্ড হয়। বাকবিতন্ডের একপর্যায়ে হেজুর নেতৃত্বে বাবুল (৩০), কামাল (২৫), বিল্লাল (২২), জয়নাল (২৩), হুমায়ুন (১৮), আলম (৩০) সহ ২০/২৫ জনের একটি দলবদ্ধ গ্রুপ ছিদ্দিক গংদের উপর হামলা করেন। এতে ময়ফুল বেগম (৫০), জিনু বেগম, মমতাজ (৩০), মাহফুজা (২২), মনোয়ারা (২৫), শাওন ছয় মাসের বাচ্চা, লোকমান (২২), আবু তাহের (৪০), সুমন (২২), আঃ মালেক (১৮) ও বাবুল আহত হন। এসময় হামলাকারীরা স্বণ অলংকার ও নগদ ক্যাশ ৩০ হাজার টাকা সহ প্রায় ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

আহতদের মধ্যে বেশ কয়েক জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এদের মধ্যে ময়ফুল, জিনু বেগম, মমতাজ বেগমের অবস্থায় গুরুত্বর হওয়া তাদেরকে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।