চকরিয়ায় ৩টি বসতবাড়ি পুড়ে ছাই

চকরিয়া পৌর এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৩টি বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ১৫ লক্ষাধিক টাকার। গতকাল বৃহস্পতিবার পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের মৌলভীপাড়ায় সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, চকরিয়া পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড মৌলভীপাড়ার মৃত রশিদ আহমদের পুত্র মিজানের বাড়িতে বৈদ্যুতিক চায়ের ফাক্স গরম দিতে গিয়ে আকষ্মিক বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট হতে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহুর্তে আগুনের লেলিহান শিখা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে অগ্নি নির্বাপক কর্মীরা দীর্ঘ দেড়ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

এসময় আগুন থেকে শিশু তিশাকে উদ্ধার করতে গিয়ে প্রতিবেশী চালক মনসুর আলম ও তিশা মনি (৮) অগ্নিদগ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়। এতে মৃত খোরশেদ আহমদের পুত্র টমটম চালক মামুন ও মৃত কামাল আহমদের পুত্র মিফতাবেরসহ পাশাপাশি পৃথক ৩টি বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ভয়াবহ এ অগ্নিকান্ডে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মূল্যবান মালামাল পুড়ে অন্তত ১৫লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বর্তমানে গৃহহীন ১৫/২০সদস্যের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

এদিকে ভয়াবহ অগ্নিকা-ের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান তরুণ সমাজ সেবক ও প্রভাবশালী ছাত্রনেতা এম.এ আরিফুল ইসলাম চৌধুরী আরিফ। তিনি ভষ্মীভূত হওয়া বাড়িঘর পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের তাৎক্ষণিক খোঁজ খবর নিয়ে সমবেদনা জানান এবং তাদের জন্য প্রাথমিক খাবার ও বস্ত্র সরবরাহ করেন। সমাজ সেবক আরিফ জরুরীভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় এগিয়ে আসতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের প্রতি জোরালো আহবান জানান। এসময় বিএমচর শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের সভাপতি নুর মোহাম্মদ আলমগীর রানাও উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।