লাকসাম-মনোহরগঞ্জে ইরি ধানের বাম্পার ফলন!

কুমিল্লার  লাকসাম-মনোহরগঞ্জে এবার ইরি ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। তবে শেষ মূহূর্তের প্রাকৃতিক দূযোর্গের আশংকায় মহা চিন্তায় রয়েছ্ েকৃষকরা ।
লাকসামে এবার ১০হাজার ৮’শ ৮৭ হেক্টর আবাদী জমির মাঝে ৯ হাজার ৯’শ ১০ হেক্টর ও মনোহরগঞ্জে ১০হাজার ১’শ ৭৫ হেক্টর জমিতে ইরি ধান আবাদ করা হয়। লাকসাম উপজেলা কৃষি অফিস ৩.৮০ মেঃ টন উপসি ও ৪.৭০ মেঃ টন হাইব্রিড ধান উৎপাদনের ল্যমাত্রা নির্ধারন করে।

সরকারী ভাবে সার, বীজ, কীটনাশক ও মাঠ পর্যায়ে পরিদর্শনের কারনে ইরি ধানের বাম্পার ফলনের আশা প্রকাশ করছেন কৃষক। মাঠ পর্যায়ে একাধিক কৃষকের সাধে কথা বলে জানা যায়, শেষ মূহূর্তের প্রাকৃতিক দূর্যোগ কাল বৈশাখী ঝড়, শিলা বৃষ্টি ও অধিক বৃষ্টিপাতের কারনে ইরি ধান বিনষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অনেক কৃষক ইরি ধান করতে গিয়ে গচ্ছিত টাকা, ধার দেনা, এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে ইরি ধান চাষে ব্যাপক ব্যয় করেছেন। প্রাকৃতিক দূর্যোগ হলে তাদের উৎপাদিত ফসলসহ ব্যাপক তি হওয়ার আশংকা করছেন।

এদিকে ২/১ টি মাঠে সামান্য পরিমান ধান কাটা শূরু হয়েছে। লাকসাম উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সিরাজ উদ্দিন হোসেন ও মনোহরগঞ্জ কৃষি কর্মকর্তা এস.এম গোলাম সরওয়ার জানান, সরকারী ভাবে সার, বীজ, কীটনাশক ও মাঠ পর্যায়ে পরিদর্শনের কারনে এবার ইরি ধানের নির্ধারিত ল্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে এবং বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।