কক্সবাজারে ‘ইয়াবা বিস্ফোরণে’ ১১ বিজিবি সদস্য আহত

‘ইয়াবা বিস্ফোরণে’ কক্সবাজারে ১১ বিজিবি জওয়ান ঝলসে গিয়েছেন। অল্পের জন্য স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ও বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমদ রক্ষা পেয়েছেন ।

রবিবার বেলা ১টার দিকে কক্সবাজাবারের ১৭ বিজিবি ব্যাটালিয়নে বিভিন্ন সময়ে জব্দ হওয়া মাদকদ্রব্য ধ্বংসকালে এই ঘটনা ঘটে।

জব্দ হওয়া এক লাখ ৭১ হাজার ৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট আগুনে পোড়াতে গিয়ে হঠাৎ চুলায় বিস্ফোরণ হলে বিজিবির ১১ জওয়ানের শরীরে আগুন লেগে যায়।

এ সময় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও বিজিবি মহাপরিচালকসহ পুলিশ, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও বিজিবির অন্য কর্মকর্তারা দৌঁড়ে সরে গিয়ে নিজেদের রক্ষা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অগ্নিদগ্ধ বিজিবি সদস্যরা মাটিতে গড়াগড়ি দিয়ে এবং অন্যরা তাদের শরীরে পানি ঢেলে আগুন নিভিয়ে ফেলেন। এই দুর্ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ বিজিবি সদস্যদের শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে যায়। তাদের দ্র্বত জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিজিবির চট্টগ্রাম দক্ষিণ-পূর্ব জোন কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার সৈয়দ আহমদ আলী সাংবাদিকদের বলেন, ‘এটি নিছক দুর্ঘটনা। এই ঘটনা আপনাদের সামনেই ঘটেছে।’

তিনি জানান, ইয়াবা পোড়ানোর জন্য তৈরি চুল্লিতে কেরোসিন ঢালতে গিয়ে বিস্ফোরণ ঘটেছে।

দুর্ঘটনায় আহতদের মধ্যে রয়েছেন বিজিবি জওয়ান হাবিব উল্লাহ, ফাইজুল কবির, বেলায়েত হোসেন ও মিলন। অন্যদের নাম নিশ্চিত করা যায়নি।

তবে বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘নিছক দুর্ঘটনা ঘটেছে। এটি নিউজ করার মতো কিছু নয়।’

তিনি সংবাদটি এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।