লাকসামে ৮টি মুর্তি উদ্ধার

কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রাম থেকে সোমবার রাতে লাকসাম থানা পুলিশ হিন্দু ধর্মালম্বী বিভিন্ন দেব-দেবীর ছোট বড় ৮টি মুর্তি উদ্ধার করেছে। উদ্ধারকৃত মুর্তিগুলোর মধ্যে একটি আট ইঞ্চি এবং অন্যগুলো গড়ে দুই ইঞ্চি দৈর্ঘ্য।
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই দিন বিকেলে কৃষ্ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে জনৈক আবদুল হাই’র পুকুরে মাটি কাটার সময় সিরাজুল ইসলাম এবং গোলাম মোস্তফা নামে দুই শ্রমিক এই মুর্তিগুলো পায়। তারা এগুলো শিশুদের খেলনা ভেবে বাড়ি নিয়ে যায়। রাতে লাকসাম থানা পুলিশ সংবাদ পেয়ে ওই গ্রামের মাটি কাটর শ্রমিক সিরাজুল ইসলাম এবং গোলাম মোস্তফার বাড়ি থেকে মুর্তিগুলো উদ্ধার করে।

এদিকে ৮টি স্বর্ণের মুর্তি উদ্ধার হয়েছে, এমন গুজব ছড়িয়ে পড়লে এগুলো এক নজর দেখার জন্য শত শত উৎসুক মানুষ অধিক রাত পর্যন্ত লাকসাম থানায় ভিড় জমায়।
লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, স্থানীয় স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের থানায় এনে প্রাথমিক ভাবে পরীক্ষা করে দেখা গেছে উদ্ধারকৃত মুর্তিগুলোর মধ্যে দুইটি পাথরের এবং ছয়টি কাঁসার তৈরী।
ওসি তিনি বলেন, ’৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় অনেক হিন্দু বাড়িতে লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই সময় লুটেরেরা এই মুর্তিগুলো পুকুরে ফেলে দিয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।