চৌদ্দগ্রামে স্কুল শিক্ষক হারাধন বাবুর পিটুনীতে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রী আহত

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে শিক্ষকের পিটুনীতে নবম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী বৃহস্পতিবার চৌদ্দগ্রাম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। তাৎণিক ভাবে ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ছাত্রী (রোল নং-১০২) নির্দিষ্ট সময়ে বিদ্যালয়ে পৌঁছাতে দেরি হয়। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে শিক্ষক হারাধন বাবু হাতে থাকা ডাস্টার দিয়ে ওই ছাত্রীকে মারাত্মক পিটুনী দেয়। এতে ছাত্রী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে শ্রেণীকে থাকা অন্য ছাত্রীদের মধ্যেও ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

 

তাৎণিক ভাবে আহত ছাত্রীকে পাশ্ববর্তী চৌদ্দগ্রাম উপজেলা কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তার হাতের এক্স-রে করাসহ চিকিৎসা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করে। ওই ছাত্রীকে চিকিৎসার জন্য বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের থেকে চাঁদা তোলা হয়। ঘটনার পর থেকে ওই শিক্ষক ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যান। নাম প্রকাশে না করার শর্তে অভিভাবক কমিটির এক সদস্য জানান, ‘বিষয়টি অমানবিক। শনিবার এ বিষয়ে পরিচালনা কমিটির জরুরী বৈঠক ডাকা হয়েছে। ওই সভায় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে’। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা আয়েশা খানম বিষয়টি স্বীকার করেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।