কুমিল্লা নগরীতে শিবির-পুলিশ সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০

কুমিল্লা মহানগরীর মনোহরপুর এলাকায় সোনালী ব্যাংকের সামনে পুলিশের সঙ্গে ছাত্রশিবির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৫জন গুলিবিদ্ধসহ ১০ শিবির নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন মহানগর শিবির নেতা শাহাদাত হোসেন, ইলিয়াস হোসেন, বিল্লাল হোসেন, সাজ্জাদ ও গোলাম কিবরিয়া। আহত অন্যদের নাম জানা যায়নি। আহতদেরকে নগরীর বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, রোববার সাতীরা শহর শিবিরের সেক্রেটারী আমিনুর রহমান পুলিশের গুলিতে  নিহত হন। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন আরো ১০জন। ঘটনার প্রতিবাদে ও জড়িত পুলিশ সদস্যদের বিচার দাবি করে সারা দেশে সেমবার বিভে মিছিল কর্মসূচী ঘোষনা করে ছাত্রশিবির। কেন্দ্রিয় কর্মসূচী আংশ হিসেবে কুমিল্লা মহানগর শিবির নেতাকর্মীরা নগরীর কান্দিরপাড় থেকে বিােভ মিছিল বের করে। মিছিলটি মনোহরপুর এলাকায় পৌঁছালে পুলিশ তাতে বাধা দেয় এবং পেছন থেকে নির্বিচারে গুলি বর্ষণ করে। এ সময় শিবিরও পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এতে উভয়পরে মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। পুলিশ ৬ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে  ৫জন গুলিবিদ্ধসহ শিবিরের ১০জন আহত হন।

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সামসুজ্জামান জনান, সংঘর্ষে কেউ আহত হয়েছেন কিনা আমার জানা নেই।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।