সোনাগাজীতে ভাগিনার সাথে মামি উধাও ॥ ৪ দিন পর আটক

সোনাগাজী উপজেলার দক্ষিণ চর চান্দিয়া গ্রামের মেস্তরী বাড়ী থেকে স্বামীকে ঘুমে রেখে ভাগীনার সাথে পালিয়ে গেছে মামি। ৪ দিন পর উভয়কে আটক করেছে পুলিশ।

 

পুলিশ ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ চর চান্দিয়া গ্রামের মেস্তরী বাড়ীর আলী আহাম্মদের সাথে গত ৬ বছর পূর্বে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক ফেনী সদর ইউনিয়নের উত্তর ধলীয়া গ্রামের হাফেজ আহাম্মদের মেয়ে বিবি মরিয়ম (২৫) এর বিবাহ হয়। বিয়ের পর তাদের ওরশে ১টি পুত্র সন্তান জন্ম লাভ করে। আলী আহাম্মদ প্রবাসে থাকার সুযোগে স্ত্রী বিবি মরিয়ম তার ভাগিনা একই গ্রামের আবু ছুফিয়ানের ছেলে জামশেদ আলম (৩২) এর সাথে সক্ষতা ও গভীর সম্পর্ক তৈরি করে। সম্পর্কের জের ধরে প্রবাস থেকে আলী আহাম্মদ বাড়ীতে আসারপর গত মঙ্গলবার দুপুরের খাবার শেষে স্বামী স্ত্রী উভয়ে বিশ্রাম নিতে বিছানায় যায়। এ সময় বিবি মরিয়ম তার স্বামী আলী আহাম্মদকে ঘুমে রেখে বাগিনা জামশেদ আলমের হাত ধরে স্বামীর বাড়ী থেকে অজ্ঞাত স্থানে চলে যায়।

 

এ ব্যপারে আলী আহাম্মদের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় ১টি সাধারণ ডায়েরী করা হয়। পুলিশ উভয়কে গ্রেফতার করতে সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। উধাও এর ৪ দিন পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুরে সোনাগাজী মডেল থানার এস আই খায়রুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ উপজেলার তাকিয়া বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে জামশেদের এক আত্মীয়ের বাড়ী থেকে ঘুমন্ত অবস্থায় উভয়কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে তারা উভয়ে ইতিমধ্যে ফেনীর জনৈক এক কাজী অফিসে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে বলে জানায়। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত উক্ত বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জাফর মো: ছালেহ পালিয়ে যাওয়া ভাগিনা-মামিকে  আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।