সোনাগাজীতে বখাটের হুমকির মুখে শিক্ষাজীবন বন্ধের পথে কলেজ ছাত্রীর

সোনাগাজী পৌরশহরের চরগণেশ গ্রামে বখাটের হুমকি মুখে শিাজীবন বন্ধের পথে চলছে এক কলেজ ছাত্রীর।
পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, চরগণেশ গ্রামের বকস আলী ভূঁঞা বাড়ির আতাউর রহমানের মেয়ে ফেনী সরকারি কলেজের ইংলিশ লিটারেসার বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্রী ফাতেমা আক্তার চম্পা (২০) কে পাশবর্তী বাড়ির আবুল কাশেমের ছেলে বখাটে ফরহাদ (২২) দীর্ঘদিন থেকে কলেজ যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করে আসছে।  এ বিষয়টি নিয়ে চম্পার পরিবারের সদস্যরা বখাটে ফরহাদের  পিতা মাতাকে     জানালেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি।

 

গত ৩ মাস থেকে বখাটে ফরহাদ চম্পাকে বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় রাস্তায় এমন কি ফেনী শহরে তার বন্ধু-বান্ধব দিয়েও প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে বেগতিক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। কিন্তু চম্পা প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় তাকে অপহরণেরও হুমকি দেয় বখাটে ফরহাদ। বিষয়টি নিয়ে পারিবারিক ও সামাজিক ভাবে সমাধানের চেষ্টা করেও কোন লাভ হয়নি। প্রতিনিয়ত বখাটে ফরহাদ কলেজ ছাত্রী চম্পাকে উত্ত্যক্ত করে চলেছে। গত ১৬ এপ্রিল বখাটে ফরহাদ চম্পার বাবা আতাউর রহমানকে পূর্ব শত্র“তার জের ধরে লোহার রড ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালিয়ে গুরুতর আঘাত করে পালিয়ে যায়।

 

এ ব্যাপারে সোনাগাজী মডেল থানায় চম্পার বড় বোন তাহমিনা আক্তার আসমা বাদী হয়ে বখাটে ফরহাদকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করে। থানায় মামলা করার পর থেকে বখাটে ফরহাদ বিভিন্ন ভাবে চম্পার পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে।  এমন কি মামলা তুলে না নিলে চম্পাকে কলেজ যাওয়ার পথে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেয়। গত ১৬ এপ্রিল থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত চম্পা কলেজ যাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে।  এ বিষয়ে চম্পার বাবা আতাউর রহমান জানান, আমার মেয়েকে উত্ত্যক্তের বিষয়ে আমি প্রতিবাদ করেছি বলেই বখাটে ফরহাদ আমার উপর হামলা চালিয়ে আমাকে গুরুতর আহত করেছে। তার হুমকির কারণে আজ আমার কলেজ পড়ুয়া মেয়ের শিাজীবন বন্ধের পথে।

 

এ ব্যাপারে সোনাগাজী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জাফর মোঃ ছালেহ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জনান, আসামীকে গ্রেফতার করতে পুলিশ প্রতিনিয়ত বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। তবে অভিযোগকারীদের প থেকে আসামীর অবস্থান সম্পর্কে সহযোগিতা পেলে মামলার কার্যক্রম আরো দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।