রায়পুরে নাতির লাঠির আঘাতে দাদি নিহত

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সয়াবিন ভাজাকে কেন্দ্র করে ফারভেজ হোসেন নামের এক কলেজ ছাত্র সৎ নাতির লাঠির আঘাতে ছলেমা খাতুন (৭০) নামে এক দাদি নিহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকালে উপজেলার উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের খাসেরহাট এলাকার রাড়ী বাড়ীতে। নিহত ছলেমা খাতুন ওই গ্রামের মৃত হাজী আলি হোসেন রাড়ীর স্ত্রী। পুলিশ খবর পেয়ে সন্ধ্যায় ছলেমা খাতুনের মৃতদেহ উদ্ধার করে জেলা হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে। এঘটনায় নিহতের ছেলে ইউসুফ রাড়ী বাদিয়ে রাত সাড়ে ৭টায় ৩ জনকে আসামী করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

 

মামলার বাদি ইউসুফ রাড়ী জানান, বিকাল ৫টায় বাড়ীতে সয়াবিন ভাজাকে কেন্দ্র করে তার সৎ ভাই ডাক্তার জয়নাল আবেদিনের ছেলে কলেজ ছাত্র পারভেজ লাঠি দিয়ে দাদি ছলেমা খাতুনের মাথায় আঘাত করে। এতে তিনি অচেতন হয়ে পড়লে তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল নেওয়া হলে কর্তব্যরত মৃত ঘোষনা করেন। ঘটনার পর পারভেজ বাড়ী থেকে পালিয়ে যায়। রাতে ইউসুফ নিজে বাদী হয়ে পারভেজ, তার মা তাহমিনা বেগম ও বড় ভাবি রুমা আক্তারকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

 

রায়পুর থানার ওসি একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহত বৃদ্ধের ছেলে ইউসুফ তিন জনকে আসামী করে হত্যা মামলা করেছেন। ঘটনাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।