বখাটেদের নির্যাতনের ভয়ে রায়পুরে তিন দিন কলেজ যাওয়া বন্ধ-ছাত্রী’র

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে নাজমা আক্তার স্বপ্না (১৬) নামের এক কলেজ ছাত্রী বখাটেদের দ্বারা নির্যাতনের ভয়ে কলেজ যেতে পারছে না। তার পরিবারটি আতংকিত রয়েছে। সে পৌরসভার উত্তর দেনায়েতপুর গ্রামের মো. ইউসুফের মেয়ে ও সরকারী ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের ছাত্রী। এঘটনায় ওই ছাত্রী শনিবার ( ৩১ মে) বিকেলে রায়পুর থানায় ৪জনের নামে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

 
নাজমা আক্তার সাংবাদিকদের জানান, গত বৃস্পতিবার দুপুরে কলেজ থেকে বাড়ী ফেরার পথে লেংড়া বাজার স্থানে স্থানীয় বখাটে সোহেলসহ ৫-৬জন উত্তক্ত্য ও অশ্লিল ভাষায় কথা বলে। এতে প্রতিবার করলে বখাটেরা নাজমাকে টানাহেছড়া ও লাঞ্ছিত করে। এঘটনায় নাজমা তার অভিভাবকদের জানালে তারা ঘটনাটি এলাকার গণমান্যদের জানান। এতে বখাটেরা উত্তেজিত হয়ে নাজমার অভিভাবকের কাছে ৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। না দিলে নাজমাকে গণধর্ষণ করার হুমকি দেয় বখাটেরা।

 
এঘটনায় আতংকিত হয়ে নাজমা গত তিন দিন ধরে কলেজ যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। এ খবর শুনে কলেজের ইংরেজি শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন ও বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মঞ্জুরুল কাদেরের সহযোগিতায় শনিবার বিকালে নাজমা তার অভিভাকদের নিয়ে বিকাল ৪টায় থানায় এসে বখাটেদের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

 
এঘটনায় অভিযুক্ত বখাটে সোহেলসহ তার সঙ্গিরা বক্তব্য নেওযা যায়নি। তবে স্থানীয় কয়েকজন দোকানি ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

 
রায়পুর থানার উপ-পরিদর্শক মো. ফোরকান হোসেন বলেন, এঘটনায় কলেজ ছাত্রী নাজমা অভিযোগ দিয়েছেন। তদন্ত করে বখাটেদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।