কিশোরী ধর্ষণ মামলায়, রায়পুরে অবশেষে ধর্ষক যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরমোহনা ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম (৩৫)কে অবশেষে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার ( ৫জুন) বিকেল সাড়ে ৫টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কাবিখা প্রকল্পের সভা থেকে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে এক কিশোরী গত শুক্রবার (১৬ই মে) বিকেলে ওই কিশোরী বাদি হয়ে রায়পুর থানায় ধর্ষন মামলা দায়ের করেছিলেন।

 
পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, চর মোহনা ইউনিয়নের দনি রায়পুর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম বুধবার দুপুরে পাশের বাড়ির এক প্রবাসীর ঘরে যায়। এ সময় ঘরে ঘুমিয়ে থাকা প্রবাসীর কিশোরী কন্যাকে একা পেয়ে গলায় ধারালো চুরি ধরে ধর্ষন করে জাহাঙ্গীর।

 

এতে কিশোরির প্রচুর রক্তরন হয়। বিষয়টি গত দুই দিন স্থানীয়ভাবে মিমাংসার চেষ্টা করে জাহাঙ্গীরের পরিবার সহ কয়েকজন প্রভাব শালী এলাবাসী। মামলার তারিখেই কিশোরীকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ডাক্তারি পরীা করানো হয়েছে।

 
অভিযোগ অস্বীকার করে যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম জানান, তার সঙ্গে ওই কিশোরির পরিবারের সু সর্ম্পক রয়েছে। বিএনপি-জামায়াতের লোকজন তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ধর্ষনের মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার করিয়েছে।

 
রায়পুর থানার উপ-পরিদর্শক আবুল বাসার জানান, গোপন সংবাদ পেয়ে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনের একটি সভা থেকে যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।