ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই সংসদ সদস্যের মধ্যে ক্ষমতা নিয়ে দ্বন্দের জের ধরে প্রায় তিন ঘণ্টা সড়ক অবরোধ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই সংসদ সদস্যের মধ্যে ক্ষমতা নিয়ে দ্বন্দের জের ধরে প্রায় তিন ঘণ্টা সরাইল-নাসিরনগর-লাখাই আঞ্চলিক সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। বৃহস্পতিবার দীর্ঘ সময় সরাইল বিশ্বরোড ও সেখান থেকে এক কিলোমিটার দূরে কুট্টাপাড়া মোড়ে ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করে।

 

দ্বন্দ্বে লিপ্ত দুই সংসদ সদস্য হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল ও আশুগঞ্জ) আসনের সাংসদ জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি জিয়াউল হক মৃধা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর-বিজয়নগর) আসনের আওয়ামী লীগের র আ ম উবায়দুল মুক্তাদির চৌধুরী। গত ৯ জুন ব্রাহ্মণাবাড়িয়া-২ আসনের অন্তর্ভুক্ত আশুগঞ্জ উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ভবন উদ্বোধন ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন মুক্তাদির। এ নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয়।

 
এ ঘটনার জের ধরে সকাল ১০টা থেকে বিশ্বরোড মোড়ে অবস্থান নেন আওয়ামী লীগের সাংসদ উবায়দুল মুক্তাদিরের পক্ষের লোকজন। সেখানে নেতৃত্ব দেন জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক নাজমুল হোসেন ও সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রফিকউদ্দিন ঠাকুর।

 

অন্যদিকে বিশ্বরোড থেকে এক কিলোমিটার দূরে অবস্থান নেন জিয়াউলের সমর্থকেরা। সেখানে তিনি নিজেই নেতৃত্ব দেন। তারা উবায়দুলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন। একটি অংশ ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধন করে, আরেকটি অংশ সবাবেশ করে। দুপুর ১টার দিকে পুলিশ উভয়পক্ষকে সরিয়ে দিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

 

 
ঘটনাস্থলে থাকা সহকারী পুলিশ সুপার শাহ আলম বকাউল বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে এমপি মহোদয়কে বিশ্বরোডে না যেতে অনুরোধ করেছি। তিনি আমাদের অনুরোধ রক্ষা করেছেন।’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।