বিএসএফের গুলিতে ফের বাংলাদেশি নিহত - খবর তরঙ্গ
ব্রেকিং নিউজ :
শিরোনাম :

বিএসএফের গুলিতে ফের বাংলাদেশি নিহত



নিউজ ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

যশোরের শার্শা উপজেলার অগ্রভুলোট সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে আবু সাঈদ (১৮) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। পতাকা বৈঠকে দুঃখপ্রকাশের ৪৩ দিনের মাথায় বিএসএফের গুলিতে আবার এক বাংলাদেশির মৃত্যুর ঘটনা ঘটল।

 

রবিবার ভোরে যশোরের শার্শা উপজেলার অগ্রভুলোট সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আবু সাঈদ শার্শা উপজেলার রামপুরা গ্রামের জামাত আলীর ছেলে। বিজিবির ২৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুর রহিম জানান, আবু সাঈদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

এ ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে চিঠি দিয়ে পতাকা বৈঠক ডাকা হয়েছে। বৈঠকের পরে এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে। স্থানীয়রা জানান, শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে আবু সাঈদসহ বেশ কয়েকজন পাঁচভুলোট সীমান্ত দিয়ে গরু আনতে ভারতে যান। ফেরার সময় বিএসএফ তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে আবু সাঈদ গুলিবিদ্ধ হয়।

 

গুরুতর অবস্থায় সঙ্গীরা তাকে উদ্ধার করে দেশে ফিরিয়ে আনলে পথে সাঈদ মারা যায়। সঙ্গীরা সাঈদের লাশ পার্শ্ববর্তী রাজগঞ্জ গ্রামের একটি বাড়ির সামনে রেখে পালিয়ে যায়। সকালে লাশ দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশ ও বিজিবিকে খবর দেয়।

 

উল্লেখ্য, ১১ এপ্রিল ভোররাতে শার্শার দৌলতপুর সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি দুই যুবক নিহত হয়। ওই ঘটনায় বিজিবি বেনাপোল আইসিপি ক্যাম্পে সন্ধ্যায় বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠক হয়। বৈঠকে ৪০ বিএসএফের কমান্ড্যান্ট বানজেন্দার সিং দুঃখপ্রকাশ করেন।

 

বিজিবি-২৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক আবদুর রহিম আরো বলেন, ‘সীমান্তে কোনো হত্যাকাণ্ড ঘটলেই আমরা প্রতিবাদ জানাই। বিএসএফ শুধু দুঃখপ্রকাশ করে। আর এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটবে না বলে তারা অঙ্গীকার করে। কিন্তু তারা কখনই তাদের অঙ্গীকার রক্ষা করে না।

 

আমরা তাদের বলেছি, আপনারা গুলি চালাবেন না। আটক করে তাদের আমাদের কাছে হস্তান্তর করেন। কিন্তু সেটাও তারা শোনে না।


এ সম্পর্কিত আরো খবর

জেলা এর অন্যান্য খবরসমূহ
যশোর এর অন্যান্য খবরসমূহ