পাঁচবিবির রতনপুর গ্রামের জুয়ারিরা আতংকে

জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম রতনপুর এর বিভিন্ন স্থানে প্রশাসনের আড়ালে জমজমাট ভাবে জুয়ার আসর চলে আসছিল। তাদের বাধা দেওয়ার মত কেউ ছিলনা।

 

জনশ্রতি ছিল এই আসর গুলো থেকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের অসাধু কিছু সংখ্যক সদস্য নিয়মিত বখরা আদায় করত। ফলে নির্বিঘ্নে জুয়ারুরা তাদের আসর চালিয়ে যেত রতনপুর বাজারের পশ্চিমে লেবুর বাগানে, কলেজের পিছনে, ফুটবল মাঠের দক্ষিণ-পশ্চিম কোনায় বাঁশ ঝাড়ে, হিন্দু পাড়া সংলগ্ন মাঠে জনৈক ব্যক্তির শ্যালো মেশিনের ঘরে চালানো হত এসব জুয়ার আসর।

 

আসর গুলোতে ১২ বছর বয়সী যুবক থেকে  নানা শ্রেনীর পেশার লোকজন জুয়ার  আসর গুলো মাতিয়ে তুলত। কিন্তুু পাঁচবিবি থানায় নতুন অফিসার ইনচার্জ আশরাফুল ইসলাম যোগদান করেই উপজেলায় মাদক ও জুয়ার বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ায় এলাকার দৃশ্যপট পাল্টে যেতে শুরু করেছে। ঐ স্থান গুলোতে আর প্রকাশ্যে জুয়ার আসর বসতে দেখা যায় না। জুয়ারুরা সর্ব সময় থাকেন গ্রেফতার আংতকে।

 

স্থানীয়রা জানান, নিয়মিত অভিযানের ফলে জুয়ার আসর প্রকাশ্যে না হলেও ঐ জুয়ারুরা এখনও গোপনে মোবাইলে যোগাযোগের মাধ্যমে জুয়ার আসর বসায়। এদের আটক করা প্রয়োজন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।