বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে নতুন উচ্চতায় বাংলাদেশ

রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা সত্ত্বেও বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে বাংলাদেশ।   রেমিটেন্স বৃদ্ধির পাশাপাশি আমদানি ব্যয় কমে যাওয়ায় রিজার্ভ এখন ২,০০০ কোটি ডলারের মাইলফলকে পৌঁছেছে।

এই প্রথম বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ ২০ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছেন ব্যাংকের ফরেক্স রিজার্ভ অ্যান্ড ট্রেজারি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের মহাব্যবস্থাপক কাজী ছাইদুর রহমান।

এ রিজার্ভ দিয়ে ৭ মাসের আমদানি ব্যয় নির্বাহ করা সম্ভব।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি প্রথমবারের মতো রিজার্ভ ১৯ বিলিয়ন ডলার ছাড়ায়। পরে ৫ মার্চ আকুর জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মেয়াদের ৯৬ কোটি ডলার আমদানি বিল পরিশোধের পর তা ১৯ বিলিয়ন ডলারের নিচে নেমে আসে।

রপ্তানি আয় ও রেমিটেন্স বাড়ায় ১৯ মার্চ রিজার্ভ আবারো ১৯ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যায়।

২০১৩-১৪ অর্থ বছরের নয় মাসে প্রবাসীরা মোট ১,০৪৭ কোটি ৯৪ লাখ টাকা দেশে পাঠিয়েছেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য মতে, সদ্য শেষ হওয়া মার্চ মাসে ১২৭ কোটি ৩৩ লাখ ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

বাংলাদেশ ব্যাংক জানায়, চলতি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের জুলাই মাসে প্রবাসীরা ১২৩ কোটি, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে ১০০ কোটি করে,  অক্টোবর মাসে ১২৩ কোটি, নভেম্বর মাসে ১০০ কোটি, ডিসেম্বর মাসে ১২১ কোটি এবং জানুয়ারি মাসে ১২৬ কোটি এবং ফেব্রুয়ারি মাসে ১১৭ কোটি ৩১ লাখ ডলার  ডলার দেশে পাঠিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।