যুবককে পিটিয়ে মেরে ফেলা দেখে আমি ভীতসন্ত্রস্ত ও মর্মাহত হয়েছি: ব্লেইক

ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)- সহিংসতার ঘটনায় বাংলাদেশের সুনাম নষ্ট হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী রবার্ট ও ব্লেইক। এজন্য সহিংসতা পরিহার করে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ফর্মুলা খুঁজতে দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দলকে পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। মঙ্গলবার সকালে ঢাকা ত্যাগের আগে হোটেল ওয়েস্টিনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ঊর্ধ্বতন এই মার্কিন কর্মকর্তা। শনিবার তিন দিনের সফরে ঢাকা আসেন রবার্ট ও ব্লেইক। ঢাকায় এসে রোববার ১৮ দলের ডাকা অবরোধের মুখে পড়েন তিনি। জেনেছেন অবরোধে সহিংসতার খবরও। মঙ্গলবার ঢাকা ত্যাগের সময় দেখে গেলেন সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল।

ঢাকা ত্যাগের প্রাক্কালে রবার্ট ব্লেইক সাংবাদিকদের বলেন, ‘সহিংসতার খবর গণমাধ্যমে দেখেছি। সেখানে দেখেছি, একজন যুবককে কিভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলা হলো। এই দৃশ্য দেখে আমি ভীতসন্ত্রস্ত ও মর্মাহত হয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মনে করে, হরতাল সাংঘাতিক ক্ষতিকর বিশেষ করে গরীব মানুষের জন্য। আমরা চাই, হরতালে সহিংসতায় যারা দায়ী তাদের কঠোর শাস্তি হোক। দীর্ঘ মেয়াদে হরতালের ক্ষতিকর আরো ভয়ঙ্কর। এর ফলে বাংলাদেশ বিনিয়োগকারীদের আস্থা হারিয়ে ফেলতে পারে।’

এসব সংকট থেকে উত্তরণে আগামী সংসদ নির্বাচন কোনো সরকারের অধীনে হবে দেশের বড় দুই দলকে সংলাপে বসার আহ্বান জানান ব্লেইক। সেই সাথে প্রধান বিরোধী দল-বিএনপিকে সংসদে এসে আলোচনায় বসারও তাগিদ দেন তিনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।