সাত বছরের ছেলেকে শাসন করায় অন্ধ্রপ্রদেশের দম্পতি গ্রেপ্তার

বিশ্ব ডেস্ক, ৩০ নভেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)- এ বার  গ্রেপ্তার হয়েছেন নরওয়েতে অন্ধ্রপ্রদেশের দম্পতি, সাত বছরের ছেলেকে শাসন করায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে । চন্দ্রশেখর ও তার স্ত্রী অনুপমা ভাল্লানেনির বিরুদ্ধে সে দেশের শিশু সুরক্ষা দপ্তরের অভিযোগ, ছেলে প্যান্টে প্রস্রাব করে ফেলায় তাকে বকাবকি করেছেন তারা।

বছর দেড়েক আগে একমাত্র ছেলে সাই শ্রীরামকে নিয়ে চাকরি সূত্রে নরওয়ে আসেন চন্দ্রশেখর ও অনুপমা। তাদের পরিবারের বক্তব্য, এ বছরের গোড়ায় সাই স্কুলের শিক্ষিকাকে বলে প্যান্টে প্রস্রাব করায় বাবা-মা তাকে বকাবকি করেছে।

শিক্ষিকা সে কথা শিশু সুরক্ষা দফতরকে জানান। তার পর সাইকে নিজেদের হেফাজতে নেয় ওই দপ্তর।

চন্দ্রশেখরের পরিবারের দাবি, শিশু সুরক্ষা দপ্তর অনুসন্ধান করে বুঝতে পারে যে, এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি। আসলে সাইয়ের মানসিক কিছু সমস্যা রয়েছে। সে জন্য এক মাস পরে সাইকে বাবা-মায়ের কাছে ফিরিয়েও দেয় তারা।

এর পর গত জুলাইয়ে ছেলেকে নিয়ে দেশে ফিরে আসেন ভাল্লানেনি দম্পতি। চলতি মাসে চন্দ্রশেখর ব্যবসার কাজে ফের নরওয়ে গেলে ২৬ নভেম্বর স্থানীয় আদালতে হাজির হওয়ার জন্য নোটিস ধরানো হয় তাকে। সেই খবর শুনে নরওয়ে যান তাঁর স্ত্রীও। ২৬ তারিখ শুনানির পরে দু’জনকেই গ্রেপ্তার করা হয়।

চন্দ্রশেখরের পরিবারের দাবি, নরওয়ে প্রশাসনের তরফ থেকে এই গ্রেপ্তার সম্পর্কে তাদের কিছু জানানো হয়নি। চন্দ্রশেখরের এক বন্ধুর কাছ থেকে তারা খবর পেয়েছেন। কেন গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সে ব্যাপারেও তারা অন্ধকারে।

এই পরিস্থিতিতে ভারত সরকারের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন চন্দ্রশেখরের পরিবার। সাই এখন হায়দরাবাদেই তার আত্মীয়-স্বজনের কাছে রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।