মিশরজুড়ে গণবিক্ষোভের ডাক ব্রাদারহুডের

মিশরের প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে পুনবর্হাল করার দাবিতে আজ জুমার দিন দেশজুড়ে গণবিক্ষোভের ডাক দিয়েছে দেশটির বৃহত্তম রাজনৈতিক দল ইসলামি ব্রাদারহুড।

দলটি আশা করছে, আজকের বিক্ষোভে লাখ লাখ লোকের সমাবেশ ঘটবে। গত ৩ জুলাই মিশরের ইতিহাসে প্রথম নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করে দেশটির আমেরিকা-পালিত সেনাবাহিনী।

মুরসিকে পুনর্বহাল করার দাবিতে গঠিত ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স ফর লেজিটিম্যাসি বলেছে, আজকের সমাবেশে মাধ্যমে মিশরবাসী জানান দিবে যে তারা সেনা সমর্থিত অন্তবর্তীকালীন সরকারকে গ্রহন করতে প্রস্তুত নয়। অ্যালায়েন্সের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মিশরের প্রতিটি মুক্ত নর-নারীর প্রতি আমরা আহ্বান জানাচ্ছি আপনারা রক্তাক্ত সেনা অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে বেরিয়ে আসুন।’

ব্রাদারহুড নেতা গেহাদ আল- হাদ্দাদ বলেছেন, মুরসিকে পুনর্বহালের দাবি থেকে পিছু হটবে না তার দল। তবে মিশরের রাজনৈতিক সংকট নিয়ে অন্য দলগুলোর সাথে আলোচনার প্রস্তাবে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন তিনি।

মিশর সফরকালে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান ক্যাথেরিন অ্যাস্টন রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সংলাপের আহ্বান জানান। হাদ্দাদ বলেন, ‘আমরা কখনো আলোচনার দরজা বন্ধ করিনি।’

তবে ইইউ’র কূটনীতিক বার্নার্ডিনো লিওন বলেছেন, দু’পক্ষের মধ্যে যোজন যোজন দূরত্ব রয়ে গেছে।

এদিকে মুরসি সমর্থকদের সভা সমাবেশ না করার জন্য হুশিয়ার করে দিয়ে সেনাবাহিনী বলেছে, শুক্রবার যারা শান্তিভঙ্গ করে সহিংসতা সৃষ্টি করতে তাদের জীবন বিপন্ন হতে পারে।

নতুন প্রেসিডেন্ট আদলি মনসুরও বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া প্রথম ভাষণে ‘বিশৃঙ্খলার’ বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।


সম্পাদনা: শামীম ইবনে মাজহার,নিউজরুম এডিটর

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।