দক্ষিণ কোরিয়ার জাহাজ ডুবিতে নিহত ৯, নিখোঁজ ২৮৭

দক্ষিণ কোরিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলে বুধবার ৪৭৫ জন আরোহী নিয়ে যে জাহাজটি ডুবে গেছে তাতে এখন পর্যন্ত অন্তত ৯জন নিহত এবং ২৮৭জন নিখোঁজ রয়েছেন। খবর সিনহুয়া’র।

নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল এগারটার দিকে কেন্দ্রীয় দুর্যোগ ও নিরাপত্তা ব্যবস্থার সদরদপ্তর থেকে জানানো হয়, ৫জন শিক্ষার্থী, দুজন শিক্ষক, একজন ক্রু এবং একজন যাত্রীর নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত।

এ দুর্ঘটনায় এখনো ২৮৭ আরোহী নিখোঁজ রয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে ১৭৯জনকে।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে ইয়েলো সাগরের কোরিয়া উপদ্বীপের কাছে জাহাজটি ডুবতে শুরু করে।

জাহাজটির বেশিরভাগ যাত্রীই ছিল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। তার শিক্ষা সফরে বের হয়েছিল।

সিউল নামের জাহাজটিতে ৩২৫জন শিক্ষার্থী, ১৫জন শিক্ষক, ৩০জন ক্রু এবং ৮৯জন অন্যান্য যাত্রী ছিল।

বৃহস্পতিবার রাতব্যাপী ৫বার ডুবুরিরা ডুবে যাওয়া জাহাজটির ভেতরে গিয়ে নিখোঁজদের অনুসন্ধানের চেষ্টা করেছে। কিন্তু তীব্র স্রোত ও পানির ভেতরে ভালোভাবে দেখা না যাওয়ায় উদ্ধার কাজ ব্যাহত হয়।

উদ্ধারকাজে ৫৫৫ জন কোস্টাগার্ড ও নৌবাহিনীর ডুবুরি, ২৯টি বিমান ও হেলিকপ্টার এবং ১৬৯টি উদ্ধারকারী জাহাজ নিয়োগ করা হয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকে ৬,৮২৭ টন ওজনের জাহাজটি উত্তোলনের কাজ শুরু হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।