চীনের প্লাবিত কয়লা খনি দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০

দক্ষিণ পশ্চিম চীনের প্লাবিত কয়লা খনি থেকে দুর্ঘটনার প্রায় দুই সপ্তাহ পর আরো ১৪টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ জনে। রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ইউনান প্রদেশের জিয়াহাইজি খনিতে ৭ এপ্রিল সকালে হঠাৎ পানি ঢুকে গেলে কর্মরত ২২ খনি শ্রমিক আটকা পড়ে।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিংহুয়া শুক্রবার রাতে জানায়, এ পর্যন্ত ২০ জনের মৃতদেহ উদ্ধারের পর এখনো দুইজন খনি শ্রমিক নিখোঁজ রয়েছে। খনির জটিল গঠনপ্রণালী এবং সংকীর্ণ টানেল উদ্ধার কাজকে কঠিন করে তুলেছে বলেও খবরে জানানো হয়।

শিল্পকৌশল কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারদের অপারেটর ও কর্মকর্তা লি মিং বলেন, ইউনান প্রদেশের কুজিং শহরের এই খনি দুর্ঘটনার অভিযোগে পুলিশ সাতজনকে আটক করেছে।

খনি দুর্ঘটনা চীনের একটি নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। বিশ্বের বৃহত্তম কনজিউমার এই কয়লা, যেখানে খনি অপারেটররা প্রায়ই নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘন করে। সরকারি হিসাব অনুযায়ী, চীনে গত বছর ৫৮৯টি খনি সংক্রান্ত দুর্ঘটনায় মারা গেছে ও নিখোঁজ হয়েছে এক হাজার ৪৯ জন।

চীনের পশ্চিমে জিনজিয়াং অঞ্চলে গত বছর ডিসেম্বরে একটি বিস্ফোরণে ২১ জন শ্রমিক মারা যায়। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।