পাকিস্তানে পক্ষকালব্যাপী রাজনৈতিক সংকট সমাধানে এবার ‘মধ্যস্ততায়’ নেমেছেন সেনাপ্রধান

পাকিস্তানে পক্ষকালব্যাপী ধরে চলা রাজনৈতিক সংকট সমাধানে এবার ‘মধ্যস্ততায়’ নেমেছেন সেনাপ্রধান জেনারেল রাহিল শরীফ।

শুক্রবার সকালে সেনাপ্রধান পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির প্রধান ইমরান খান ও পাকিস্তান আওয়ামী তেহরিক পার্টির প্রধান তাহিরুল কাদরির সাথে বৈঠক করেছেন।

তবে একগুঁয়ে ইমরান খান তার এক দাবি, প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ, থেকে সরে যাবেন না বলে সমর্থকদের জানিয়েছেন।

ইমরান খান জানান, সেনাবাহিনী একটি বিচার বিভাগীয় কমিশন গঠন করে গত নির্বাচনে কথিত কারচুপির অভিযোগ তদন্ত করার প্রস্তাব দিয়েছে। তবে ইমরান খান বলেছেন, নওয়াজ শরীফ প্রধানমন্ত্রীর পদে আসীন থাকলে সুষ্ঠু তদন্ত হবে না।

সেনাপ্রধান এমন সময় রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করলেন যখন পাকিস্তান সরকার তাহিরুল কাদরির প্রধান দাবি পুলিশের গুলিতে সম্প্রতি তার দলের সমর্থকদের নিহত হওয়ায় ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা রুজু করতে সম্মত হয়েছে।

গত সংসদ ও প্রাদেশিক নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে অভিযোগ করে নির্বাচনের ১৫ মাস পর নওয়াজ সরকারের পদত্যাগ দাবিতে ইসলামাবাদে দুই সপ্তাহ ধরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন ইমরান ও কাদরি।

তবে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকরা ওই নির্বাচনকে সুষ্ঠু বলে মন্তব্য করেছে।

পাকিস্তানের এই জনসমর্থনহীন রাজনৈতিক ইস্যু দেশটির কর্তৃত্বপরায়ণ সেনাবাহিনীর চাল বলেই অনেক বিশ্লেষণ মত দিয়েছেন।

একটি জনপ্রিয় ও নির্বাচিত সরকারকে দুর্বল করতেই সেনাবাহিনী ইমরান খান ও তাহিরুল কাদরিকে মাঠে নামিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সূত্র: এনডিটিভি

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।