বিনা অপরাধে ৩৯ বছর কারাদণ্ডের পর মুক্তি, ক্ষতিপূরণ ৮ কোটি টাকা

যুক্তরাষ্ট্রে এক ব্যক্তি খুনের মিথ্যা অভিযোগে ৩৯ বছর কারাদণ্ড ভোগ করার পর এখন ক্ষতিপূরণ হিসেবে  প্রায় ১০ কোটি টাকা পাচ্ছেন। রিকি জ্যাকসন নামের ওই ব্যক্তিকে অন্যায়ভাবে খুনের দায়ে সাজা দেয়া হয়।

 

যুক্তরাষ্ট্রে ভুল রায়ের ফলে তিনিই সর্বোচ্চ সাজা খেটেছেন। এ ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার পর ওহাইও রাজ্য সরকারকে আদালত ১০ লাখ ডলারের বেশি (প্রায় ৮ কোটি টাকা) ক্ষতিপূণ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে।

 

রিকিকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছিল। কিন্তু কাগজপত্রের ভুলের কারণে তার মৃত্যুদণ্ড থেকে বেঁচে যান। ৮ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণে পাবার খবরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে ৫৮ বছর বয়সী রিকি বলেছেন, ‘আমি ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। এটা তো অনেক টাকা।’

 

ক্লিভল্যান্ডে এক মানি অর্ডার বিক্রেতাকে হত্যার দায়ে ১৯৭৫ সালে রিকি ও তার ঘনিষ্ঠ তিন বন্ধুকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়।  তখন রিকির বয়স ছিল ১৯ বছর।

 

১৩ বছর বয়সী কিশোর এডি ভার্ননের সাক্ষ্যের ভিত্তিতে রিকির দুই ভাইকেও সাজা দেয়া হয়। তার দুই ভাই ২৬ বছর ও ২৭ বছর সাজা খাটার পর ২০০২ ও ২০০৩ সালে মুক্তি পান। রিকি মুক্তি পান গত ডিসেম্বরে।

 

সম্প্রতি এডি ভার্নন এফিডেভিট দিয়ে স্বীকার করেছেন যে পুলিশ নির্যাতন করে তাকে রিকি ও তার ভাইদের বিরুদ্ধে মিথ্যা সাক্ষী দিতে বাধ্য করেছিল।

 

এরপর ওহাইওর একটি আদালত রিকিকে ১০ লাখ ৮ হাজার ৫৫ ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। তার ভাইয়েরাও ক্ষতিপূরণ পাবেন।

 

সূত্র: দা টেলিগ্রাফ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।